• ঢাকা
  • বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

রাতের আঁধারে আ.লীগের কার্যালয় পুড়ে ছাই


শরীয়তপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২৪, ০৩:২৮ পিএম
রাতের আঁধারে আ.লীগের কার্যালয় পুড়ে ছাই

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় রাতের আঁধারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আগুনে পুরো কার্যালয়টি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা করা হবে বলে জানিয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার বালাখানা এলাকায় পালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার গভীর রাতে কোনো এক সময় কে বা কারা কার্যালয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। রাত গভীর হওয়ায় কেউ টের না পেলেও সড়কে চলাচলকারী গাড়ির চালকরা স্থানীয়দের ডাকাডাকি করলে তারা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি টিম এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে আশপাশের কোনো প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি না হলেও কার্যালয়ে থাকা চেয়ার, টেবিল, টিভিসহ পুরো ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

পালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. মিরাজ হাসান বলেন, “গত রাতে কে বা কারা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে। কার্যালয়ের ভেতর বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অপু ভাইয়ের ছবি ছিল। ওই ছবিগুলোও পুড়ে গেছে। পরিকল্পনা করেই দুর্বৃত্তরা আগুন দিয়েছে। আমরা ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিচার দাবি করছি।”

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর পেদা বলেন, “দলীয় কার্যালয়ে কে বা কারা আগুন দিয়েছে, তা এই মুহূর্তে বলতে না পারলেও এটা নিশ্চিত যে পরিকল্পনা করেই আগুন দেওয়া হয়েছে। কারণ দলীয় কার্যালয় ছাড়া আশপাশের কোনো ঘরের কোনো ক্ষতি হয়নি। অথচ কার্যালয়টি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা এসেছেন, তাদের সঙ্গে আলাপ করে আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।”

শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “কয়েকদনি আগে স্থানীয় কিশোরদের সঙ্গে একটি বিষয় নিয়ে হাতাহাতি হয়। সাধারণত ছোটদের এই সমস্ত ঝামেলা নিয়ে পরবর্তীতে বড়দের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। বিষয়টি এক পর্যায়ে দলীয় পর্যায়ে চলে যায়। আমরা সরাসরি না দেখলেও ধারণা করছি ওই বিষয়কে কেন্দ্র করেই কেউ আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা থানায় সাধারণ ডায়েরি করব। পুলিশ তদন্ত করে বিষয়টি মামলায় রূপ দিয়ে দুর্বৃত্তদের আইনের আওতায় নিয়ে আসবেন বলে প্রত্যাশা আমাদের।”

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স শরীয়তপুরের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা শংকর বিশ্বাস সংবাদ প্রকাশকে বলেন, রাত ৩টা ২০ মিনিটে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। আগুনের সূত্রপাত তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিতে দেরি হওয়ায় পুরো কার্যালয়টি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ সংবাদ প্রকাশকে বলেন, আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আগুনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Link copied!