• ঢাকা
  • বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

হাওরের বুকে ১৪ কিলোমিটার সড়কজুড়ে আলপনা


কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৪, ২০২৪, ০৮:০৮ পিএম
হাওরের বুকে ১৪ কিলোমিটার সড়কজুড়ে আলপনা

দুই পাশে বিস্তীর্ণ হাওরের মাঝ দিয়ে ১৪ কিলোমিটার সড়ক রাঙানো হয়েছে আলপনায়। পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে এই মনোমুগ্ধকর পরিবেশটিকে আরও রঙিন করে তোলা হয়েছে। পুরো সড়কটিতে আঁকা হয়েছে বাঙালি সংস্কৃতির দৃশ্যপটের আলপনা। সেই আলপনা রাঙা সড়ক থেকে হাওরের সৌন্দর্য উপভোগ করতে ভিড় জমিয়েছে হাজারও মানুষ।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন জিরোপয়েন্ট ১৪ কিলোমিটার আলপনার উদ্বোধন করেন ডাক ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ১৬ কিলোমিটার সড়কের ১৪ কিলোমিটার সড়কচিত্র অঙ্কনে ৬৫০ জন চিত্রশিল্পী ও ২০০ জন স্বেচ্ছাসেবী কাজ করেছেন। এতে তিন ধরনের ৪০০ ব্রাশ ও তুলি, ১৬ হাজার লিটার লাল, নীল, বেগুনি, হলুদসহ হরেক রং ব্যবহার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বাসিন্দা জহির আহমেদ বলেন, ‘দুদিন ধরে ফেসবুকে পোস্ট দেখে মুগ্ধ হয়েছি। তাই ছেলেমেয়ে, স্ত্রীসহ বেড়াতে এলাম। সত্যি বলছি, এত প্রাণবন্ত সৌন্দর্য এর আগে দেখেনি।’

সমাজকর্মী মুজাহিদ সরকার বলেন, ‘হাওরে এই বছর বৈশাখে ভিন্নমাত্রার আনন্দ হচ্ছে। আলপনা ঘিরে তৈরি হয়েছে উৎসব। অন্যদিকে হাওরে চলতি বর্ষায় পর্যটক বাড়বে, হাওরে পর্যটক বাড়লে হোটেল-মোটেল তৈরি হবে। এতে করে নতুন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, মিঠামইন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ এরশাদ মিয়া প্রমুখ।

এ আয়োজনে যৌথভাবে ছিল বাংলালিংক, এশিয়াটিক ও বার্জার পেইন্টস।

Link copied!