• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

বেয়াইয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় স্বামীকে হত্যা, স্ত্রীর যাবজ্জীবন


ফরিদপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২৩, ০৫:৪০ পিএম
বেয়াইয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় স্বামীকে হত্যা, স্ত্রীর যাবজ্জীবন

ফরিদপুরে বেয়াইয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় স্বামীকে হত্যার দায়ে ফুলমালা মিত্র (৩৮)  নামের এক নারীকে সশ্রম যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৭ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় দেন। এ সময় 
ফুলমালা মিত্র আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নির্মল মিত্র একজন কাঠমিস্ত্রি ছিলেন। নির্মলের স্ত্রী ফুলমালার সঙ্গে তার মেয়ের শ্বশুর নীল কমল মণ্ডলের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি নির্মল মিত্র জেনে গেলে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এরপর পরকীয়ার পথ মসৃণ করতে ২০২১ সালের ১২ জানুয়ারি রাতে ফুলমালা নির্মলকে খাবারের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাওয়ান। এতে নির্মল অজ্ঞান হয়ে পড়লে ফুলমালা ও নীল কমল গলায় মাফলার পেচিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করেন।

এ ঘটনার পরদিন (১৩ জানুয়ারি) নির্মলের ছোট ভাই পরিমল মিত্র (৪৩) বাদী হয়ে ফুলমালা ও নীল কমল মণ্ডলকে আসামি করে মধুখালী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার পরদিন (১৪ জানুয়ারি) নীল কমল বিষপানে আত্মহত্যা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মধুখালী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তোতা মিয়া ওই বছরের ১ এপ্রিল ফুলমালাকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র প্রদান করেন।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের কৌশলী (পিপি) নওয়াব আলী মৃধা বলেন, “মেয়ের শ্বশুরের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়ার জন্য স্বামীকে হত্যা করেন ফুলমালা। আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন। এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। সমাজের শৃঙ্খলা বিধানে এ রায় ভূমিকা রাখবে।”

Link copied!