• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১২ মুহররম ১৪৪৫

স্কুলছাত্রকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৩


কুমিল্লা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ৭, ২০২২, ০১:০১ পিএম
স্কুলছাত্রকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৩

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে পাওনা টাকা আদায়ের জন্য এক স্কুলছাত্রকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (৩ মে) ঈদুল ফিতরের দিন বিকেলে উপজেলার ভৈরবপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার (৬ মে) বুড়িচং থানায় মামলা করেছেন স্কুলছাত্রের বাবা।

সম্প্রতি এ ঘটনার একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে তা কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদের নজরে পড়ে। পরে পুলিশ সুপারের নির্দেশে শুক্রবার রাতে এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করে বুড়িচং থানা-পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন মো. নাহিদুল ইসলাম (২০), মো. নাজমুল হোসেন (২৩) ও জসিম উদ্দিন (২৭)।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রের বাবা বলেন, “কিছুদিন আগে আমি পাশের গ্রাম ভৈরবপুর এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে নাহিদুলের দোকান থেকে একটি খাট বানাই। খাট বানানোর ৪৫০ টাকা বকেয়া রয়েছে। ঈদের কয়েক দিন আগে নাহিদুল বাড়িতে এসে টাকার জন্য গালাগাল করেন। আমি টাকা পরিশোধের জন্য তার কাছে সপ্তাহখানেক সময় চাই। তবু সে এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করে এবং আমার গায়ে হাত তোলে।”

তিনি আরও বলেন, “এরপর ঈদের দিন বিকেলে আমার ছেলে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বের হলে নাহিদুলসহ আরও কয়েকজন তাকে তার বন্ধুদের সামনে থেকে অস্ত্র ঠেকিয়ে টেনেহিঁচড়ে তুলে নিয়ে যায়। পরে নাহিদুলের বন্ধু নাজমুলের বাড়িতে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে মারধর করে। এ সময় আমি বাইরে কাজে ছিলাম। খবর পেয়ে বাড়িতে এসে থানায় ফোন দিই। পরে স্থানীয় ইউপি সচিব ও গ্রাম পুলিশ সেখান থেকে আমার ছেলেকে উদ্ধার করে।”

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শনিবার দুপুরে বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, এক স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের দায়ে পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশে তাদের আটক করা হয়েছে।

কুমিল্লা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার জানান, এ ঘটনায় পুলিশ সুপার স্যার দোষীদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন। আটক তিনজনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। 

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!