• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১, ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বাড়িতে আশ্রয় হলো না মা-বাবার, ৩ ছেলে আটক


খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২১, ০৮:৩৭ পিএম
বাড়িতে আশ্রয় হলো না মা-বাবার, ৩ ছেলে আটক

খুলনার পাইকগাছায় বৃদ্ধ মা-বাবাকে ভরণপোষণ না দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয় সন্তানরা। এ ঘটনায় তিন ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। আর ওই বৃদ্ধ দম্পতির ভরণপোষণের দায়িত্ব নিল উপজেলা প্রশাসন।

এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে উপজেলার গদাইপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে। বাবা মেছের আলী গাজীর বয়স (৯৮) এবং মাতা সোনাভান বিবির বয়স (৮৬)। 

তাদের চার ছেলে ও ৫ মেয়ে সন্তান রয়েছে। মা-বাবার জায়গা জমি কয়েক বছর আগে চার ছেলে লিখে নেয়। এরপর থেকে বড় ছেলে রওশন আলী গাজী মাকে এবং বাকি তিন ছেলে পালাক্রমে বাবা মেছের আলীকে খেতে দেন।

ঘটনার দিন সোমবার (২ আগস্ট) নিয়ম অনুযায়ী মেজ ছেলের পর ছোট ছেলের খেতে দেওয়া পালা। কিন্তু ছোট ছেলে বাবা মেছের আলীকে খেতে না দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেন। মেছের আলী সঙ্গে তার স্ত্রীও বাড়ি থেকে বের হয়ে এসে মানিকতলা বাজারে একটি দোকানে আশ্রয় নেন।

খবর পেয়ে রাত ১০টার দিকে মানিকতলা বাজারে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী। ঘটনার সত্যতা যাচাইপূর্বক খুঁজে বের করেন চার ছেলেকে। গদাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান ও স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতিতে চার ছেলেকে ডেকে ঘটনার বিস্তারিত শোনেন ইউএনও। 

পরে বড় ছেলে রওশন গাজীর জিম্মায় বাবা মেছের আলী গাজী ও মা সোনাভান বিবিকে রেখে বাকি তিন ছেলে মতলেব গাজী, মশিয়ার গাজী ও মোশাররফ গাজীকে পুলিশে সোপর্দ করেন।

এদিকে ওই বৃদ্ধ দম্পতির জন্য বালতি, জগ, মগ, গামছাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের একটি সেট এবং এক মাসের খাবার দিয়ে আসেন ইউএনও। 

ইউএনও এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী জানান, এই বৃদ্ধ মা-বাবার খাদ্য, চিকিৎসা, পোশাকসহ যাবতীয় ব্যয়ভার এখন থেকে উপজেলা প্রশাসন স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে বহন করবে।

ওসি মো. এজাজ শফি জানান, আটকরা তাদের বৃদ্ধ পিতামাতাকে দেখাশোনা ও ভরণপোষণ করে না। সামাজিক চাপে ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলেও তারা ঠিকভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করেন না। এমনকি বাবা-মাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। আটকদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

Link copied!