• ঢাকা
  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১, ৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

৪ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন টেনিস তারকা সিমোনা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২৩, ০৪:০৮ পিএম
৪ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন টেনিস তারকা সিমোনা
টেনিস খেলোয়াড় সিমোনা হালেপ। ছবি: সংগৃহীত

একদিন আগেই অ্যান্টি ডোপিং টেস্টে অভিযুক্ত হয়ে ‘অস্থায়ীভাবে’ নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়েন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার পল পগবা। এবার একই অভিযোগে দুই বারের গ্র্যান্ড-স্ল্যামজয়ী টেনিস তারকা সিমোনা হালেপ নিষিদ্ধ হলেন। এই টেনিস তারকাকে ডোপিং আইনের দুটি ধারা লঙ্ঘনের দায়ে চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সিমোনা মেয়েদের টেনিস র‌্যাংকিংয়ে সাবেক শীর্ষ খেলোয়াড়। মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ইন্টেগ্রিটি এজেন্সি (আইটিআইএ) জানিয়েছে, ৩১ বছর বয়সী রোমানিয়ান তারকা ‘ইচ্ছাকৃতভাবে’ ডোপিং–বিরোধী নীতিমালা ভেঙেছেন। খেলাধুলায় নিষিদ্ধ উপাদান রোক্সাডাস্টট্যাট নেওয়ায় ২০২২ সালে ডোপ পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছিলেন হালেপ। চলতি বছরের মে মাসে তিনি অন্য একটি ডোপিং নীতিমালা ভাঙার দায়েও অভিযুক্ত হন, যে কারণে তার ‘বায়োলজিক্যাল অ্যাথলেট পাসপোর্টে’ অনিয়ম ধরা পড়েছিল।

এর আগে ২০২৩ সালের অক্টোবরে ‘অস্থায়ীভাবে’ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল হালেপকে। বিষয়টি নিয়ে স্বাধীন বিচারিক কমিশন জানিয়েছে, এবার তাকে পূর্ণ মেয়াদে নিষিদ্ধ করা হয়েছে, যা ৭ অক্টোবর ২০২২ থেকে শুরু হয়ে ৬ অক্টোবর ২০২৬ সালে শেষ হবে। তবে হালেপ এই শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।

২০২৩ সালের জুনে স্বাধীন বিচারিক কমিশনে উপস্থিত হয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন করেছিলেন হালেপ। ১১ সেপ্টেম্বরে এই কমিশন জানায়, হালেপ ইচ্ছাকৃতভাবে টেনিসের ডোপিং–বিরোধী নীতিমালায় ২ নম্বর অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করেছেন। ২০২২ সালের ২৯ আগস্টে ইউএস ওপেনে হালেপের মূত্র–নমুনায় রোক্সাডাস্টট্যাট ধরা পড়েছিল।

সাবেক নম্বর ওয়ান টেনিস তারকা ডোপিং টেস্টে অভিযুক্ত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তার দাবি, তিনি কোনো নিষিদ্ধ ওষুধ খাননি। তিনি যে ওষুধ খেয়েছেন, তা নিষিদ্ধ নয়। অসুস্থতার জন্য তাকে রক্ত স্বল্পতার ওষুধ খেতে হয়েছিল। হালেপ যে ওষুধ খাওয়ার দাবি করেছেন, তা খেলে শরীরে কিছু পরিমাণ রোক্সাডাস্টট্যাট থাকতে পারে। কিন্তু তার শরীরে যে পরিমাণ রোক্সাডাস্টট্যাট পাওয়া গেছে, তা তার দাবির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয় বলে জানিয়েছে আইটিআইএ।

এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলের ঘোষণা দিয়েছেন সিমোনা হালেপ। এই টেনিস তারকা বলেন, “আমি আইটিআইএ-র এই সিদ্ধান্ত মানছি না। এখনও নিজের অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছি। নিজের নামে লাগা কলঙ্ক দূর করতে যতটুকু সম্ভব আমি করে যাব। আমার বিরুদ্ধে আনা এই সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা। আমি সব মিথ্যা প্রমাণ করব। কোর্ট অফ আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে এর বিরুদ্ধে আবেদন জানাব।”

Link copied!