• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৮ শা’বান ১৪৪৫

জামাল এখন আর্জেন্টাইন ক্লাব সোল দে মায়োর


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১৯, ২০২৩, ০৫:৫১ পিএম
জামাল এখন আর্জেন্টাইন ক্লাব সোল দে মায়োর
ছবি: সংগৃহীত

সব গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া আর্জেন্টাইন ক্লাব সোল দে মায়োর হয়ে চুক্তি সই করেছেন। এই ক্লাবটি আর্জেন্টিনার একটি তৃতীয় বিভাগের দল । শুক্রবার (১৮ আগস্ট) ফেসবুক লাইভে এসে জামালকে আর্জেন্টিনার ক্লাবটা আনুষ্ঠানিক ভাবে পরিচয় করিয়ে দেন।

ফেসবুক লাইভে জামালকে ৬ নম্বর জার্সি তুলে দেন ক্লাবের কর্তারা। এই সময় তার সামনে সাজিয়ে রাখাছিল বাংলাদেশের অনেকগুলো পতাকা। বাংলাদেশ দলের অধিনায়কের চুক্তি নিয়ে কোনো পক্ষই মুখ খোলেনি। তবে বিভিন্ন গনমাধ্যম থেকে জানা যায় সোল দে মায়োর হয়ে দেড় বছরের জন্য চুক্তি করেছেন জামাল। তিনি প্রতিমাসে ১৩ হাজার ডলার বেতন পাবেন যা বাংলাদেশের টাকার হিসেবে প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ টাকা।

ক্লাবের যোগ দেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা জামালের ফেসবুক থেকেও প্রচার করা হয়। এই সময় জামালকে কিছু প্রশ্ন করা হয়। শুরুতেই সোল দে মায়োর সভাপতি আদেন ভালদেবেনিতো ধন্যবাদ জানায় জামালকে সঙ্গে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যায়। এসময় সভাপতি বলেন, “জামাল এখানে আসায় তাকে অনেক ধন্যবাদ। এখানে জামাল আসায় আমরা খুব খুশি। জামালকে ক্লাবের পক্ষ থেকে যেসব প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, তা পূরণ করা হবে।”

জামালের হাত ধরেই শুরু হচ্ছে আর্জেন্টিনার ক্লাবে এদেশের ফুটবলারদের যাত্রা। তিনি চান এখানে ভালো কিছু করে বাংলাদেশে আরও ফুটবলারদের জায়গা তৈরি করতে। জামাল ভূঁইয়া বলেন, “আমি এখানে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি। বাংলাদেশের অনেক মানুষ আমাকে পছন্দ করে, অনুসরণ করে। আমি এখানে আমার দক্ষতা দেখাতে এসেছি। আশা করি, আমি যদি ভালো করি, আরও দুই-তিনজন বাংলাদেশি এখানে আসতে পারবে।“

জামাল বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক তার আন্তর্জাতিক অনেক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তার এই অভিজ্ঞতাই আর্জেন্টিনার ক্লাবটিতে কাজে লাগাতে চান তিনি। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, “আমি ক্লাবকে আমার অভিজ্ঞতা দিতে পারি। আমার বেশ কিছু আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা আছে। আমি দলে নতুন প্রাণশক্তি দিতে চাই। আমি চাই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সোল দে মায়োকে আরেক ধাপ ওপরে নিয়ে যেতে।”

বাংলাদেশ দলের অধিনায়াককে সোল দে মায়ো ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি থেকেই চাচ্ছিল। কিন্তু সেই সময় বাংলাদেশের ক্লাব শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র তাকে ছাড়েনি। যার কারণে সেই সময় তার আর যাওয়া হয়নি। এরপর কিছু দিন আগে সোল দে মায়োর ক্লাব কর্তাদের সঙ্গে জামালের ছবি ফেসবুকে দেখা যায়। তখন আবারও গুঞ্জন ওঠে অধিনায়ক বুয়েনস এইরেসের ক্লাবটিতে নাম লেখাতে যাচ্ছেন।

এরপর নাটকীয়তা শুরু হয় ক্লাবটা কয়েক ঘন্টা পরেই জামালের সেই ছবি ফেসবুক থেকে সরিয়ে ফেলে। দেশের গণমাধ্যম গুলোতে জামালের আর্জেন্টিনার ক্লাবে যোগ দেওয়ার ঘটনায় সংবাদ প্রকাশ হলে ৯ আগস্ট জামাল ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি দাবি করেন, তিনি পরিবারের সঙ্গে ইউরোপে আছেন। এর এক সপ্তাহ পর জামাল বাংলাদেশ ফুটবল দলের সাবেক আর্জেন্টাইন কোচ ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি সঙ্গে ছবি এবং আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ভবনে জার্সি হাতে ছবি তুলে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দেন তিনি। এই ঘটনা গুলোর পর একপ্রকার নিশ্চিত হয়েই গিয়ে ছিল সবাই জামাল ভূঁইয়া আর্জেন্টাইন ক্লাবে যোগ দিচ্ছেন। সেই সব গুঞ্জন সত্যিও হলো।

Link copied!