• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১,

ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেললে বিশ্বকাপে ভালো করা সম্ভব ভারতের : সৌরভ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২৩, ১২:০০ পিএম
ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেললে বিশ্বকাপে ভালো করা সম্ভব ভারতের : সৌরভ
ফাইল ছবি

এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট ভারত। একে তো ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ তার উপরে রয়েছে দলটি দারুণ ছন্দে। পেস অ্যাটাকে শেষ মহুর্তে দলে যুক্ত হয়েছেন জসপ্রীত বুমরাহ। এদিকে, শেষ ১৫ ওয়ানডের ১০টি ম্যাচে জিতেছে দলটি। হেরেছে ৫ টিতে। নিজেদের এই পারফর্ম এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপে ধরে রাখতে পারলে বিশ্বকাপ জেতা অসম্ভব কিছু নয় বলে মনে করেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি।

৮ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপে যাত্রা শুরু হবে ভারতের। আর বিশ্বকাপের শুরু থেকেই যদি ভয়ডর হীন ক্রিকেট খেলতে পারে রোহিত-বিরাটরা তাহলে ভালো কিছু করা সম্ভব বলে জানান গাঙ্গুলি। গাঙ্গুলি বলেন, ‘‘ফলের আশা না করে ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলা উচিত রোহিত শর্মাদের। আমি নিশ্চিত, ভারত কোনও দলকেই ছোট করে দেখবে না। প্রত্যেকে যদি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে খেলে, তা হলে কোনও ফলই অসম্ভব নয় ।”

প্রায় একবছর পর ইনজুরি কাটিয়ে ভারতের দলে ফিরেছেন জসপ্রীত বুমরাহ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ফিরেই দারুণ বোলিং করে হয়েছেন ম্যাচ সেরা। সৌরভ মনে করেন বুমরাহ দলে ফেরায় শক্তি আরও বেড়ে গেছে ভারতের। সাবেক বিসিসিআই প্রধান বলেন, “খুব ভাল ছন্দে দেখলাম বুমরাকে। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওর প্রত্যাবর্তন দেখে ভাল লাগল। কয়েকটি ম্যাচ আরও খেললে আগের ছন্দ নিশ্চয়ই ও ফিরে পাবে। তখন ওকে সামলানো কঠিন হবে বিপক্ষের।”

বিশ্বকাপের আগে ভারত এশিয়া কাপে মুখোমুখি হবে ভারতের বিপক্ষে। দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ম্যাচে কাকে ফেভারিট ভাবছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক? এমন প্রশ্নের উত্তরে সৌরভ বলেন, “পাকিস্তানও খুব শক্তিশালী। ওদের পেস বিভাগ বিশ্বের অন্যতম সেরা। নাসিম শাহ, হারিস রউফ, শাহিন শাহ আফ্রিদি নিজেদের দিনে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। ওদের দলে ভারসাম্য আছে। ভারতও খুব শক্তিশালী। সেই বিশেষ দিনে যারা ভাল খেলবে, তারাই এগিয়ে থাকবে। চাপ সামলাতে জানতে হবে।”

দলে চাহালকে না রাখায় কিছুটা হতবাক বিসিসিআইয়ের সাবেক প্রধান। বলেন আমি নির্বাচক হলে অবশ্যই ওকে দলে রাখতাম। সৌরভ বলেন, “ওকে ছাড়া দল গড়া সত্যি কঠিন। তবে এটাও ঠিক, তিন জনের বেশি স্পিনার খেলানো সম্ভব নয়। জাদেজার নাম সবচেয়ে আগে লেখা উচিত। কুলদীপও জীবনের অন্যতম সেরা ছন্দে রয়েছে। আর অক্ষরকে হয়তো স্পিনারের চেয়েও বেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যবহার করা হবে। তাই চাহালকে নিলেও ওকে কোথায় খেলাত?”

এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপে ভারত কেমন করবে সেটা হয়তো সময় বলে দিবে। তবে, এই মুহূর্তে দলটির জন্য স্বস্থি একটাই সেটা হল ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরেছেন জসপ্রীত বুমরাহ-লোকেশ রাহুল ও শ্রেয়াস আইয়ার।

Link copied!