• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

ফাইনালেও হাসলো না লিটনের ব্যাট


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৭, ২০২৩, ০৪:১৬ পিএম
ফাইনালেও হাসলো না লিটনের ব্যাট
ছবি: সংগৃহীত

কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি লিগের ফাইনালে মন্টিয়াল টাইগার্সের বিপক্ষে ৫ উইকেটে হেরেছে লিটন দাসের সারে জাগুয়ার্স। ফাইনালে লিটনের ব্যাট হাসেনি। ১২ বলে ১৩ রান করে আউট হয়ে প্যাভিলিয়ানে ফিরলেন। ফাইনাল ম্যাচে সারে ২০ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৩০ রান জড়ো করে। জবাবে মন্ট্রিয়াল টাইগার্স ৫ উইকেট হাতে রেখে শিরোপা নিজেদের করে নেয়।

এদিন ব্রাম্পটনে টস হেরে ব্যাটিংয়ে যায় সারে। ব্যাটিংয়ে নেমে যতিন্দর সিং ও মোহাম্মাদ হারিস ৩৫ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন। হারিস ২৩ রানে বিদায়ের পর টাইগার ব্যাটার ক্রিজে আসেন। প্রতি ম্যাচের মত এই ম্যাচেও ইনিংস শুরু করেন ধীরগতিতে।

তিনি ১২ বলে ১ চারে ১৩ রান করে অয়ন আফজাল খানের বলে বোল্ড আউট হয়ে সাঁজ ঘরে ফেরেন। এরপর আয়ান খানের ১৫ বলে ২ ছক্কায় ২৬ এবং যতিন্দর অপরাজিত ৫৬ রানের ইনিংসে ভর করে সারে জাগুয়াস ১৩১ রানের টাগের্ট দেন মন্ট্রিয়াল টাইগার্সকে।

জবাবে মোহাম্মাদ ওয়াসিম রানের খাতা খুলার আগেই আউট হন।এরপর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক ক্রিস লিন এবং শ্রীমান্ত বিজয়ারাত্নে। দুজনের জুটি থেকে আসে ৩৫ রান। শ্রীমান্ত ফিরে গেলেও রানের চাকা ছিল সচল। ১২তম ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে বসে মন্ট্রিয়েল।

শেষ পর্যন্ত অবশ্য টিকে ছিলেন শেরফেইন রাদারফোর্ড। তার দায়িত্বশীল ৩৮ রান গড়ে দেয় জয়ের ভিত। তবে, ম্যাচের শেষটা করেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে রাসেল। ৬ বলে ২০ রানের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদেই জয় পায় মন্ট্রিয়েল। শেষ বলে দরকার ছিল ১ রান। তবে রাসেল শেষ করেছেন নিজের মত করেই। ছয় মেরেই নিশ্চিত করলেন মন্ট্রিয়েল টাইগার্সের শিরোপা।

মন্ট্রিয়াল দলে  ছিলেন বিশ্ব সেরা আলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিনি এখন লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ খেলতে শ্রীলঙ্কাতে আছেন।

লিটন এই টুর্নামেন্ট ব্যাট হাতে পুরাপুরি ব্যর্থ বলা চলে। টাইগার ব্যাটার ৭ ইনিংসে ব্যাট হাতে ২১ দশমিক ৭১ গড়ে ১৫২ রান করেছেন। তার স্ট্রাইক রেট ছিল ১০০ দশমিক ৬৬। এটা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সঙ্গে যায় না। তিনি ৭ ইনিংসে একবার অর্ধশত রানের দেখা পেয়েছেন। কানাডার লিগে প্রতি ম্যাচেই ব্যাট হাতে ভক্তদের হতাশ করে ফিরেছেন তিনি।

শেরফেইন রাদারফোর্ড হয়েছেন ম্যাচ ও সিরিজ সেরা।

Link copied!