• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১২ মুহররম ১৪৪৫

জিমেইলের নিরাপত্তায় ব্যবহার করুন ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৩০, ২০২২, ০৫:৩৬ পিএম
জিমেইলের নিরাপত্তায় ব্যবহার করুন ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’

প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ ইমেইল আদান-প্রদান করা হয় পুরো বিশ্বে। এই প্রযুক্তিটি ব্যবহার করতে গুগলের জিমেইল সেবা অনেকের প্রথম পছন্দ। ২০২২ সালে জিমেইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮০ কোটিতে। ফলে ইমেইলের নিরাপত্তা জোরদার করতে তাদের চেষ্টার কমতি নেই।

ইমেইলে পাঠানো গোপন তথ্যকে আরও নিরাপদ রাখতে ২০১৮ সালে জিমেইলে যুক্ত হয় ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’। এই মোড ব্যবহার করে ইমেইলের সঙ্গে পাসওয়ার্ড ও মেয়াদ জুড়ে দেওয়া যায়। অর্থাৎ, পাঠানো ইমেইলেও নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেন প্রেরক।

এই মোডে পাঠানো ইমেইলের নির্দিষ্ট মেয়াদ নির্ধারন করে দেন প্রেরক। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর প্রাপক আর এটি থেকে কপি, প্রিন্ট, ডাউনলোড অথবা ফরওয়ার্ড করতে পারবেন না।

কম্পিউটার ব্রাউজারে কনফিডেনশিয়াল মোড

পিসিতে এই ফিচার ব্যবহারের জন্য শুরুতে জিমেইলের কম্পোজ উইন্ডো ওপেন করতে হবে। এর একদম নিচের অংশে ডান দিক থেকে তৃতীয় আইকনটিতে তালা ও ঘড়ির ছবি রয়েছে। সেখানে ক্লিক করে ব্যবহার করা যাবে এই কনফিডেনশিয়াল মোড।
 

এই ফিচারটির জন্য প্রেরক ১ দিন থেকে ৫ বছর পর্যন্ত মেয়াদ দিতে পারবেন। সঙ্গে যুক্ত করা যাবে পাসওয়ার্ড। এই পাসওয়ার্ড ছাড়া প্রাপক ইমেইলটি পড়তে পারবেন না।
 

মোবাইল ব্রাউজারে কনফিডেনশিয়াল মোড

এতে একইভাবে কম্পোজ উইন্ডো ওপেন করতে হবে। তবে এবার প্রেস করতে হবে স্ক্রিনের উপরের ডান দিকের ডট চিহ্ন তিনটিতে। সেখানে ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’ লেখাতে চাপ দিলেই নিরাপত্তা ফিচারটি ব্যবহার করা যাবে।

কনফিডেনশিয়াল মোডে পাঠানো ইমেইলটি খোলার পর প্রাপক তার জন্য নির্ধারিত সময় দেখতে পাবেন। তবে বাড়তি সুরক্ষা দিতে পারলেও ব্যবহারকারীকে স্ক্রিনশট নিতে বাধা দিতে পারে না এই কনফিডেনশিয়াল মোড।

Link copied!