• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সংসদের ১৪তম অধিবেশন শুরু


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১, ২০২১, ০৫:৫০ পিএম
সংসদের ১৪তম অধিবেশন শুরু

একাদশ জাতীয় সংসদের ১৪তম অধিবেশন শুরু হয়েছে। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়। করোনার কারণে এবারের অধিবেশন চলবে মাত্র চার কার্যদিবস।

করোনা মহামারির মধ্যে এবারও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংসদ চলবে। এক্ষেত্রে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ থাকা সংসদ সদস্যরাই অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন। প্রতিদিন ১০০/১২০ জন সংসদ সদস্যের উপস্থিতিতে বসবে সংসদের বৈঠক।

এদিকে অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার প্রথমে সভাপতিমণ্ডলীর নাম ঘোষণা করেন এবারের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন- শহীদুজ্জামান সরকার, শামসুল হক টুকু, আব্দুল মমিন মন্ডল আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, শেখ এ্যনি রহমান। স্পিকার-ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে এদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন।

পরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সংসদে একটি অধ্যাদেশ উত্থাপন করেন। এরপর স্পিকার শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সংসদে যাদের নামে শোক প্রস্তাব প্রকাশ করা হয় তারা হলেন- কুমিল্লা-৭ আসনের সংসদ সদস্য মো. আলী আশরাফ, সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন আহমেদ, তোফাজ্জল হোসেন সরকার, জামাল উদ্দিন আহম্মদ, খুররম খান চৌধুরী, মো. রেজা খান জাহানারা বেগম এবং আনোয়ার হোসেন।

এছাড়া গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর, গীতিকার ফজল-এ-খোদা, হাইকোর্টের বিচারপতি আমির হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব এস এ সামাদ, ব্রিটিশ সাংবাদিক সাইমন ড্রিং, জার্মানির ফটুবলার গার্ড মুলার, সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জমান আহমেদের মা শামসুন্নাহার বেগম, সংসদ সদস্য মমতা হেনা লাভলীর মা আনোয়ারা খানম, সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের মা মানোয়ারা বেগম, সাবেক তথ্য কমিশনার আবু তাহের,  কুলিয়ারচর গ্রুপের চেয়ারম্যান ব্যবসায়ী মুছা মিয়া, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পাইলট নওশাদ আতাউল কাইউম, সংসদ সচিবালয়ের সাবেক সচিব আবুল হাশেম, সংসদ সচিবালয়ের পরিচ্ছন্নতাকর্মী শংকরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। 

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাশেদ ফুডসের কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে হতাহত, চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে হতাহত, হাইতিতে ভূমিকম্পে হতাহতসহ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় হতাহতদের জন্য শোক প্রকাশ করা হয়। পরে অধ্যাপক আলী আশরাফের জীবনের ওপর আলোচনার পর স্পিকার সংসদ অধিবেশন মুলতবি করেন।

করোনাভাইরাসের কারণে এবার শুক্রবারও জাতীয় সংসদের বৈঠক বসবে। তৃতীয় দিন শুক্রবার ছুটির দিন হলেও অধিবেশন বসবে। ওইদিন বিকেল ৪টায় বসবে অধিবেশন। করোনার কারণে তাড়াতাড়ি অধিবেশন শেষ করতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এবারও সাংবাদিকরা সংসদের বৈঠকের সংবাদ সংগ্রহের জন্য সংসদ ভবনে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি।
 

জাতীয় বিভাগের আরো খবর

Link copied!