• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

পুরুষের কাছে নারী কী প্রত্যাশা করে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৯, ২০২৪, ০৫:৫১ পিএম
পুরুষের কাছে নারী কী প্রত্যাশা করে
ছবি: সংগৃহীত

নারীদের মন বোঝা দায়। এমন কথা প্রায়ই পুরুষের মুখে শোনা যায়। কারণ কোনো কিছু করেই নারীকে খুশি করা যায় না বলে তাদের অভিযোগ। পুরুষদের ধারণা, নারী মন পাওয়া যায় না সহজেই। তারা কী পছন্দ করে আর কোনটাতে খুশি হয় তা বোঝাই যায় না।

এমন অভিযোগ করার আগে জানুন নারীরা কেমন পুরুষ পছন্দ করেন। পছন্দের পুরুষরা সহজেই নারীদের মন পান। পুরুষের মধ্যে কিছু বিশেষ গুণ থাকলে নারীরা বেশি পছন্দ করেন। বিশেষ গুণসম্পন্ন এসব পুরুষদের খুব একটা কষ্ট করতে হয় না নারীদের মন পেতে। তাই পুরুষরা আগে নিজেদের যাচাই করুন এরপর নারীদের মন পাওয়ার চেষ্টা করুন।

সততা ভালো মানুষের সবচেয়ে বড় গুণ। যে পুরুষের মধ্যে সততা থাকে নারীরা তাকে বেশি পছন্দ করে। নারীর মনে জায়গা করে নিতে সব বিষয়ে সততা রাখতে হবে। কারণ নারীরা সম্পর্কে জড়িয়ে প্রতারিত হতে চান না। তাই যে পুরুষের সততা রয়েছে তার উপর ভরসা করে নারীরা।

নারীদের মন পেতে হলে বিশ্বস্ত হতে হবে। বিশ্বাস করা যায় এমন পুরুষের উপর নারীরা দ্রুত আকর্ষিত হয়। যে পুরুষ সম্পর্ক বা অন্য যেকোনো বিষয়ে বিশ্বাস অর্জন করতে পারবে সেই হবে নারীর আদর্শ পুরুষ।

বোকা ছেলেদের নারীরা কমই পছন্দ করেন। বিশেষ করে যাদের সেন্স অব হিউমার নেই তাদেরকে নারীরা পছন্দ করে না। নারীকে খুশি রাখতে হবে, যে কোনো পরিস্থিতিতে তাকে আনন্দে রাখতে হবে এমন পুরুষের উপর নারীরা ভরসা করে। আবার যেকোনো পরিস্থিতি সহজভাবে সামলে নেওয়ার ক্ষমতা থাকলেও নারীরা মুগ্ধ হবে।

নারী পুরুষ সবার মধ্যেই আত্মবিশ্বাস থাকতে হয়। আত্মবিশ্বাসী না হলে যে মানুষকে অন্যরাও কদর করে না। নারীরাও তাদের আদর্শ পুরুষের মধ্যে এই গুণ খোঁজে। পুরুষরা আত্মবিশ্বাসী হলে নারীরা তাকে পছন্দ করে। যে পুরুষ স্পষ্টভাবে নিজের অবস্থান জানান দিতে পারে এবং সুন্দর করে কথা বলে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারে তাকে নারীরা বেশী পছন্দ করে।

নারীর মন পেতে হলে বুদ্ধিমত্তারও পরিচয় দিতে হবে। আইনস্টাইন কিংবা কোনো বিজ্ঞানী হতে হবে না। শুধু যেকোনো পরিস্থিতি বা ঘটনাকে সামলে নেওয়ার ক্ষমতা থাকলেই হবে। আবার সব বিষয়ে সুস্পষ্ট ধারণা থাকলেও পুরুষরা জ্ঞানী বলে আখ্যায়িত হন। এমন পুরুষদেরও নারীরা বেশ পছন্দ করেন। তাছাড়া ব্যক্তিগত ও কর্মজীবনেও বুদ্ধিমত্তার প্রয়োজন রয়েছে।

ক্যারিয়ার সচেতন পুরুষদের নারীরা বেশ পছন্দ করেন। যেসব পুরুষ নিজের ক্যারিয়ার গড়েছেন এবং ভালো পজিশনে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন তাদের নারীরা বিশেষ মর্যাদাও দেয়। পরিশ্রমী পুরুষরা নারীদের কাছে প্রিয়। অলস পুরুষদের তারা মোটেও পছন্দ করেন না।

সব নারীই জীবনে অর্থনৈতিক নিরাপত্তা চান। তাই যে পুরুষ তাকে অর্থনৈতিক নিরাপত্তা দেবে তাকেই পছন্দ করেন নারীরা। পুরুষের ভালো চাকরি, টাকাপয়সা থাকলে নারীরা সহজেই তাদের পছন্দ করেন। কারণ জীবনে নিরাপত্তা এবং উন্নত লাইফস্টাইলের জন্য় অর্থনৈতিক নিরাপত্তা চান নারীরা। অস্কারজয়ী হলিউড তারকা অ্যান হ্যাথওয়ের বলেন, “ধনী পুরুষ কেবল অলস নারীদের আকর্ষণ করে! পরিশ্রমী নারীর জন্য পুরুষ যদি ধনী হন, সেটা একটা ‘বোনাস’।

এছাড়াও যেসব পুরুষের মধ্যে সম্মান, দয়া, মায়া, সহানুভূতি বেশি তাদেরকেও পছন্দ করে নারীরা। পরিবারকে সম্মান দেওয়া, অন্য মানুষ ও পোষা প্রাণীর প্রতি মায়া সহানুভূতি থাকলে নারীরা খুব সহজেই ইমপ্রেস হয়। এক গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব ছেলের পোষা প্রাণী থাকে, মেয়েরা তাদের প্রতি বেশি আকৃষ্ট হন বেশি। পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজে জড়িত পুরুষদেরও নারীরা বেশ পছন্দ করে।

 

তথ্যসূত্র: জেন্টলমেনস জার্নাল

Link copied!