• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শখের কাজই গড়বে ক্যারিয়ার


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২৪, ০৩:৫৬ পিএম
শখের কাজই গড়বে ক্যারিয়ার
ছবি: সংগৃহীত

শখের দাম লাখ টাকা—এই প্রবাদ বাক্যের মানে কী জানেন? এর মানে হচ্ছে, শখের কাজ অমূল্য হয়। এতে মানুষের ধ্যান- ধারণা, মন-প্রাণ যুক্ত থাকে। নিজের সেরাটা দিয়ে মানুষ শখের কাজ করে। জীবিকা নির্বাহের জন্য দৈনন্দিন নানা কাজ করলেও শখের কাজ করে শুধুমাত্র আত্মতৃপ্তির জন্যে।

সবারই শখ রয়েছে। একেক জনের শখ একেক রকম। শখের কাজ করেই আমরা অবসরে মজার, আকর্ষণীয় ও চ্যালেঞ্জিং কিছুতে মেতে থাকতে পারি। আর আমাদের জীবনের বাড়তি উদ্দীপনা যোগ করতে শখের কাজের বিকল্প নেই।

অনেকের শখ হচ্ছে নিত্যনতুন কিছু করা, আবার কারো শখ হচ্ছে প্রিয় কিছু জমানো কিংবা ছবি আঁকা বা ঘুরে বেড়ানোসহ আরো অনেককিছু। এমন অনেক কিছুই থাকে যা শখের বশে মানুষ করে। মূলত যা করে মানুষ আনন্দ পায় তাই শখের তালিকায় যুক্ত হয়। যা এক বা একাধিক হতে পারে। কিছু মানুষ শখের কাজের মাধ্যমে আত্মউন্নয়নের পথ বেছে নেন। যে শখের কাজটি আত্মতৃপ্তি দিচ্ছে সেই কাজ দিয়েই আত্মউন্নয়নে মনোনিবেশ করেন। বিশেষজ্ঞরা  জানান, শখের কাজ যখন আত্মউন্নয়নে ভূমিকা রাখে তখন সফলতার পথ সহজ হয়।

অনেকেই বুঝে উঠতে পারছেন না কোন শখকে আপনি আত্মউন্নয়নের কাজে লাগাতে পারেন। এই আয়োজনে এমন কিছু শখের কথা  জানাব যা আত্মউন্নয়নের চমত্কার ধারণা হতে পারে।

ছবি আঁকা

পেইন্টিং বা ছবি আঁকার শখ অনেকেরই থাকে। কিন্তু জানেন কি, এটি আত্মউন্নয়নের দারুণ সুযোগ করে দিতে পারে। বিশ্বজুড়ে পেইন্টিং একটি প্রতিষ্ঠিত শিল্প। এটি মানসিক স্বস্তি দিবে। কল্পনাশক্তিকে বৃদ্ধি করে। যারা পেইন্টিং করতে পছন্দ করেন তারা নিজেকে প্রতিভা কাজে লাগিয়ে অর্থ রোজগার করতে পারেন। কারণ পেইন্টিং করা যেমন শখের কাজ, তেমনি অনেক  ধনীরাই চড়া মূল্যে  পেইন্টিং কিনতেও পছন্দ করেন। তাই এই শখটি আপনার ভবিষ্যত উজ্জ্বল করতে পারে।

বাগান করা

প্রকৃতির কাছাকাছি থাকলে শরীর ও মন দুই ভালো থাকে। সেই ভালো লাগা থেকেই বাড়ির বারান্দা কিংবা ছাদের গাছের বাগান করেন অনেকে। গাছ লাগানো তাদের শখের কাজ। বীজ রোপণ করা এবং সেগুলো সুন্দর গাছে পরিণত হতে দেখার সঙ্গে নিজেদের বৃদ্ধি এবং বিকাশের একটি রূপক মিল থাকে। যা দেখে আত্মতৃপ্তি পাওয়া যায়। বাগান করা ধৈর্য ও অধ্যবসায়ী মানসিকতার পরিচয় দেয়। আধুনিক জীবনের ব্যস্ততা ও ঝামেলার মাঝেও শখের বাগান গড়ে তুলেন। সেই বাগান থেকে সবজি ফল বিক্রির জন্যও রাখতে পারেন। অনেকেই তাজা ফল ও সবজির সন্ধানে থাকে। এমন ক্রেতাদের কাছে আপনি জনপ্রিয় হয়ে উঠবেন সহজেই।

রান্না করা

অনেকেই মনে করেন, রান্না তো প্রতিদিনই করতে হয়। এটা আবার শখের কী! অথচ অনেকের কাছেই শখের অন্যতম হচ্ছে রান্না করা। রান্নার বিভিন্ন পদ নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট চালানো। নিত্যনতুন রান্না করা এবং সবাইকে খাওয়ানো অনেকেরই শখের কাজ। ডিজিটাল যুগে এই শখের কাজটি করে অনেকেই আত্মকর্মসংস্থান  করেছেন। অনলাইনে ফুড ডেলিভারি দিচ্ছেন। রোজগার করছেন। শখের রান্না করে অনেকে গৃহিণীই এখন আত্মনির্ভরশীল হয়ে উঠেছে। তাই আপনার যদি রান্না করতে ভালো লাগে এটিকে ক্যারিয়ার হিসেবেও বিবেচনা করতে পারেন।

ফটোগ্রাফি

প্রকৃতির সৌন্দর্য ফ্রেমবন্দী করতে চারপাশে ছুটে বেড়ানোর কী আপনার শখ। দারুণ সব ছবি তুলতে পারেন আপনি। তবে ফটোগ্রাফি শিল্পকে নিজের ক্যারিয়ার বানিয়ে নিন। ফটোগ্রাফিতে চারপাশের সৌন্দর্য ও খুঁটিনাটি বিষয়গুলোকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণে উৎসাহ দেয়। এই শখটি টাইম ক্যাপস্যুল হিসেবে কাজ করে। যার মাধ্যমে জীবনের অতৃপ্ত মুহূর্তগুলোকে ভুলে সামনে এগিয়ে যাওয়া সহজ হয়ে যায়। বর্তমান সময়ে ফটোগ্রাফির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। যা থেকে নিজির সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে নিতে পারেন। এতে মানসিক শান্তিও পাওয়া যায়। বলা যায়, এই শখটি মানসিক বুস্টার হিসেবে কাজ করে।

Link copied!