• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৯ মুহররম ১৪৪৫

দৃষ্টিহীনতা নিয়েই কার রেসিংয়ে জয় করলো বিশ্বকে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১, ২০২২, ১০:০৬ এএম
দৃষ্টিহীনতা নিয়েই কার রেসিংয়ে জয় করলো বিশ্বকে

দৃষ্টিহীন চোখ নিয়েই বিশ্ব রেকর্ডে নিজের নাম জুড়েছেন ড্যান পারকার। যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা পারকার দৃষ্টি প্রতিবন্ধকতা নিয়েই কার রেসিংয়ে জয়ী হয়েছেন। তার এই জয়ে অবাক বিশ্ব! সম্প্রতি গিনেস ওয়ার্ল্ড ড্যানকে সবচেয়ে দ্রুত দৃষ্টিশক্তিহীন কার রেসার হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। 

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ৩১ মার্চ ড্যান পারকার বিশ্বরেকর্ডের মাইলফলক ছুঁয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ মেক্সিকোতে স্পেসপোর্ট আমেরিকার কার রেসিংয়ে যোগ দেন। সেখানে ড্যানের জন্য বিশেষ একটি গাড়ি তৈরিও করা হয়। বিশেষ গাড়িটি নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করা হয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির কণ্ঠনিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা। সেই গাড়িতে ঘণ্টায় ২১১ দশমিক শূন্য ৪৩ মাইল গতি তোলেন। যা অবাক করে উপস্থিত দর্শকদের। কারণ দৃষ্টিহীনতা নিয়ে এই অসাধারণ কাজটি করে দেখানো সহজ ছিল না। কিন্তু পারকার এই কাজটি করেছেন এবং রেকর্ডও গড়েছেন।

dan parkar record

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস সূত্র আরও জানায়, ড্যান পারকারই প্রথম যে দৃষ্টিহীনতা নিয়ে রেসিং ট্র্যাকে গাড়ি চালিয়ে এতো বেশি গতি তুলতে সক্ষম হয়েছেন। এর আগের রেকর্ডটি ছিল ঘণ্টায় ২০০ দশমিক ৫১ মাইলের। ড্যান পেশায় একজন কার রেসিংয়ের পেশাদার খেলোয়াড়। এক দশক আগে রেসিংয়ে অংশ নিয়েই এক দুর্ঘটনায় তিনি দৃষ্টি হারিয়েছেন। তবে দুর্ঘটনা তাকে থামাতে পারেনি। বরং নিজের স্বপ্ন পূরণ করেছেন তিনি।

dan parkar

পারকার বলেন, ‘১০ বছর পর এই অর্জনে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এই অনুভূতি আনন্দের। প্রমাণ করেছি, দৃষ্টিশক্তিহীন মানুষেরা শুধু গাড়ি চালাতে পারেন তা নয়, গাড়িতে ঘণ্টায় ২০০ মাইলের বেশি গতিও তুলতে পারেন। সর্বাধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে এই কাজ সম্ভব হয়েছে।‍‍`

দেশটির ‘ন্যাশনাল ফেডারেশন অব দ্য ব্লাইন্ডসে’র দৃষ্টিশক্তিহীন ব্যক্তিদের গাড়ি চালানোর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার প্রকল্পের অংশ হিসেবে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ড্যান পারকার তার এই অর্জনের বিষয়ে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী ছিলেন বলেও জানান।

Link copied!