• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১,

ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে এক ব্যক্তি নিহত, গুগলের বিরুদ্ধে মামলা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২৩, ০৪:১৬ পিএম
ম্যাপ দেখে গাড়ি চালিয়ে এক ব্যক্তি নিহত, গুগলের বিরুদ্ধে মামলা
দুর্ঘটনার ৯ বছর আগে ভেঙে পড়ে সেতুটি । সংগৃহীত

ভাঙা সেতুতে গাড়ি চালিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে পানিতে ডুবে মারা যান এক মার্কিন ব্যক্তি। তার পরিবার দাবি করছে, গুগল তাদের ম্যাপ আপডেট করতে ব্যর্থ হওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

ফিলিপ প্যাক্সন নামক সেই ব্যক্তির পরিবার তার মৃত্যুর জন্য গুগলের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েক কাউন্টির দেওয়ানি আদালতে দায়ের করা মামলায় অভিযোগ করা হয়, গুগলের অবহেলায় ম্যাপে এটি দেখানো হয়নি যে সেতুটি নয় বছর আগে ভেঙে গেছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্যাক্সন ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে উত্তর ক্যারোলিনার হিকরিতে ক্ষতিগ্রস্ত সেতুটির ওপর দিয়ে গাড়ি চালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় সেতু থেকে পড়ে তিনি মারা যান।

গুগলের একজন মুখপাত্র বলেন, কোম্পানি অভিযোগগুলো পর্যালোচনা করে দেখছে।

দুই সন্তানের পিতা প্যাক্সন। তার মেয়ের নবম জন্মদিনের পার্টি হয় তার এক বন্ধুর বাড়িতে। সেখান থেকে ফেরার সময় গাড়ি চালাচ্ছিলেন প্যাক্সন। মামলার তথ্য অনুসারে, মৃত্যুর সময় তিনি একটি অপরিচিত এলাকায় ছিলেন।

তার স্ত্রী তাদের দুই মেয়েকে নিয়ে আগে বাড়ি চলে গিয়েছিল। প্যাক্সন পার্টির বাড়ি পরিষ্কারে সহায়তা করার জন্য থেকে যান। পরে তিনি একাই ফেরার পথ ধরেন।

প্যাক্সনের পরিবারের আইনজীবী মামলার কথা ঘোষণা করে একটি বিবৃতিতে বলেন, “স্থানীয় রাস্তাগুলোর সঙ্গে অপরিচিত হওয়ায় তিনি গুগল ম্যাপ্সের উপর নির্ভর করেছিলেন। আশা করেছিলেন যে এটি তাকে নিরাপদে তার বাড়িতে স্ত্রী ও কন্যাদের কাছে নিয়ে যাবে। দুঃখজনকভাবে, অন্ধকার ও বৃষ্টিতে সতর্কতার সঙ্গে গাড়ি চালানোর সময়, তিনি সন্দেহাতীতভাবে গুগলের সেকেলে নির্দেশাবলী অনুসরণ করেছিলেন। তার পরিবার পরে জানতে পারে প্রায় এক দশক ধরে সেতুটিকে ‘ব্রিজ টু নোহয়্যার’ বলা হয়। প্যাক্সনের গাড়ি স্নো ক্রিকে বিধ্বস্ত হয়। যেখানে তিনি ডুবে যান।”

২০১৩ সালে ব্রিজটি ভেঙে পড়ার পর স্থানীয় বাসিন্দারা গুগল ম্যাপ পরিবর্তন করার জন্য বারবার গুগলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল বলে মামলায় দাবি করা হয়।

Link copied!