• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১,

কানাডার হিন্দুরা ভয়ে আছেন : কানাডার এমপি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩, ০৩:৫৫ পিএম
কানাডার হিন্দুরা ভয়ে আছেন  : কানাডার এমপি
কানাডার এমপি চন্দ্র আর্য । সংগৃহীত

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো খালিস্তানি নেতা হারদীপ সিং নিজ্জার হত্যাকাণ্ডে নয়াদিল্লির জড়িত থাকার অভিযোগের পর ভারত ও কানাডার সম্পর্কে উত্তেজনা দেখা দেয়। এই কূটনৈতিক উত্তেজনার মধ্যে কানাডার এমপি চন্দ্র আর্য দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর ‘টার্গেট হামলার’ নিন্দা করেছেন এবং হিন্দু-কানাডিয়ানদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চন্দ্র আর্য খালিস্তানপন্থী গোষ্ঠী শিখ ফর জাস্টিস দ্বারা পরিচালিত গণভোটের দিকে ইঙ্গিত করেন এবং বলেন যে এর সভাপতি গুরপতবন্ত সিং পান্নুন হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্যদের কানাডা ছেড়ে যেতে বলেছেন।

চন্দ্র আর্য বলেন, “খালিস্তান আন্দোলনের নেতা কানাডার হিন্দু ও শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি করার জন্য হিন্দু-কানাডিয়ানদের উসকানি দেওয়ার চেষ্টা করছেন।”

তিনি আরও বলেন, দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ শিখ সম্প্রদায়ের সদস্যরা খালিস্তান আন্দোলনকে সমর্থন করেন না।

খালিস্তানপন্থী আন্দোলন ও অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ সম্পর্কিত বিষয়ে ভারত ও কানাডার মধ্যে ইতোমধ্যেই সম্পর্কে উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। আরও ট্রুডোর দাবির পর তা চরমে পৌঁছেছে।

উল্লেখ্য, চন্দ্র আর্য হলেন একজন ইন্দো-কানাডিয়ান নেতা। যিনি প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর দল লিবারেল পার্টি অব কানাডার সদস্য।

তিনি আরও অভিযোগ করেছেন যে হিন্দু-কানাডিয়ানদেরকে সফট টার্গেট হিসাবে বিবেচনা করা হয় কারণ তারা ‘লো প্রোফাইল’ বজায় রাখে। আর্য ‘সন্ত্রাসবাদের মহিমান্বিতকরণ’ ও ‘বাকস্বাধীনতার’ নামে ঘৃণামূলক অপরাধের নিন্দা করেন।

তিনি বলেন, “আমি বুঝতে পারছি না কীভাবে বাক ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার নামে সন্ত্রাসবাদ বা ধর্মীয় গোষ্ঠীকে লক্ষ্য করে ঘৃণামূলক অপরাধের মহিমা ঘোষণা করা হয়। কানাডায় কোনো শ্বেতাঙ্গ আধিপাত্যবাদী যদি কানাডার কোনো গোষ্ঠীকে আক্রমণ করে এবং তাকে দেশ ছেড়ে যেতে বলে তাহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হবে। কিন্তু স্পষ্টতই, এই খালিস্তানি নেতা এই ঘৃণামূলক অপরাধ থেকে রেহাই পেতে পারেন।”

Link copied!