• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

বেলুচিস্তানে ক্লিয়ারেন্স অপারেশনে সাত সেনাসহ নিহত ১৩


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২৩, ০৩:৪৫ পিএম
বেলুচিস্তানে ক্লিয়ারেন্স অপারেশনে সাত সেনাসহ নিহত ১৩

পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের মুসলিম বাগ শহরে ফ্রন্টিয়ার কনস্ট্যাবুলারি (এফসি) ক্যাম্পে একটি ক্লিয়ারেন্স অপারেশনে সেনাবাহিনীর ৭ সদস্যসহ ৬ ছয় সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। দেশটির ইন্টার-সার্ভিস পাবলিক রিলেশনস (আইএসপিআর) ) এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

শনিবার (১৩ মে) পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডন এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

বিবৃতিতে আইএসপিআর বলেছে, শুক্রবার শুরু হওয়া ক্লিয়ারেন্স অপারেশনটি শেষ হয়েছে। শনিবার সকালে ছয় সন্ত্রাসী যারা অস্ত্রে সুসজ্জিত ছিল তাদের সবাইকে হত্যা করা হয়েছে। অপারেশন চলাকালে একজন বেসামরিক নাগরিকসহ মোট সাতজন সেনা নিহত হয়েছে। এছাড়া একজন নারীসহ আরও ছয়জন আহত হয়েছেন।

আইএসপিআর জানিয়েছে, একটি আবাসিক ভবন থেকে তিনটি পরিবারকে বাঁচাতে উদ্ধার অভিযানও পরিচালনা করা হয়েছিল। সন্ত্রাসীরা তাদের ভয়ঙ্কর পন্থা থেকে শিশুদেরও রেহাই দেয়নি।

আইএসপিআর প্রয়োজনীয় গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করে তাদের (সন্ত্রাসীদের) যোগসূত্র খুঁজে বের করার কথাও জানিয়েছে। সন্ত্রাসীদের সহযোগিতাকারিদের গ্রেপ্তার করা এবং তাদের পৃষ্ঠপোষকদের খুঁজে ধ্বংস করার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলেও জানানো হয়।

এর আগে গতকাল শুক্রবার আইএসপিআর এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল,  বেলুচিস্তানের মুসলিম বাগ শহরে একটি ফ্রন্টিয়ার কনস্ট্যাবুলারি (এফসি) ক্যাম্পে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে। সে হামলায় দুইজন সৈন্য এবং দুই সন্ত্রাসী নিহত হয়েছিল। এছাড়া আরও ৩ সেনা আহত হয়েছিলেন।

বেলুচিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী আবদুল কুদুস বিজেঞ্জো হামলার নিন্দা করে দুই সেনার নিহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন।

এদিকে শনিবার পৃথক আরেকটি ঘটনায় কেচ জেলার হোশাব এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলি বিনিময়ে পাঁচ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। সন্ত্রাসীরা সেখানে একটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলা চালিয়েছিল।

পাকিস্তান ইন্সটিটিউট ফর কনফ্লিক্ট অ্যান্ড সিকিউরিটি স্টাডিজ এর তথ্যানুসারে, ২০১৮ সালের জুলাই মাসের পর ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসটি ছিল সবচেয়ে মারাত্মক মাসগুলোর মধ্যে একটি। জানুয়ারি মাসে পাকিস্তানজুড়ে অন্তত ৪৪টি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ১৩৪ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং ২৫৪ আহত হয়েছিলেন।

Link copied!