• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৩ মুহররম ১৪৪৫

শ্রীলঙ্কায় গঠিত হচ্ছে সর্বদলীয় সরকার


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৭, ২০২২, ০৪:২৬ পিএম
শ্রীলঙ্কায় গঠিত হচ্ছে সর্বদলীয় সরকার

অর্থসংকটে ধুঁকতে থাকা শ্রীলঙ্কায় সর্বদলীয় সরকার গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশের প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে। সংকট মোকাবেলায় সর্বদলীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিল দেশের সব বিরোধী দল। দীর্ঘদিন বিক্ষোভের পর বিরোধীদের প্রস্তাবে রাজি হয়েছেন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) সর্বদলীয় সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এক বিবৃতি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় নেতাদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে সর্বদলীয় সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। শ্রীলঙ্কার চলমান সংকট দূর করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী ২৯ এপ্রিল প্রেসিডেন্টের বাসভবনে প্রাথমিক এক বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে। সব রাজনৈতিক দলের নেতা, সংসদে থাকা দলগুলোর নেতা ও ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের বৈঠকে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ করেছেন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে। সর্বদলীয় সরকার গঠনের বিষয়ে সবার আলোচনার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে জানান, বর্তমান মন্ত্রিসভা ও প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করলে কীভাবে সরকার গঠন করা যেতে পারে, সে বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

এর আগে ১১ এপ্রিল প্রথমবারের মতো নিজ দেশে চলমান দুর্দশার কথা স্বীকার করেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে। মহামারি থেকে নিজ দেশকে রক্ষা করতে পারলেও রাজনৈতিক ও অর্থসংকটের কবলে পড়ে শ্রীলঙ্কা অতল গহ্বরে নিমজ্জিত হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

দক্ষিণ এশিয়ার ২ কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার দেশটি ১৯৪৮ সালে স্বাধীন হওয়ার পর থেকে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির জন্যও প্রয়োজনীয় বৈদেশিক মুদ্রারও ঘাটতি রয়েছে।

দেশটি বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে আছে। বিক্ষোভ দমনে কয়েক দফা কারফিউ ও জরুরি অবস্থা জারি করে সরকার। যদিও এসব নিষেধাজ্ঞা ধাপে ধাপে উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এদিকে আগামী ছয় মাসের জন্য ৩০০ কোটি ডলার বৈদেশিক সহায়তা চেয়েছে চরম অর্থসংকটে থাকা শ্রীলঙ্কা। জ্বালানি, ওষুধসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের সরবরাহ পুনরুদ্ধার করতে এ সহায়তা প্রয়োজন বলে জানান শ্রীলঙ্কার অর্থমন্ত্রী আলী সাবরি। যদিও সহায়তার পাওয়ার বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি।

২০১৯ সাল থেকে রাজাপাকসে ও তার পরিবারের সদস্যরা দেশটির প্রশাসনে রয়েছে। কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলা করছে দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে চলছে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ।

Link copied!