• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,

সোহেল রানার জন্মদিনে মিশা-ডিপজলের ফুলেল শুভেচ্ছা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪, ০৯:২১ এএম
সোহেল রানার জন্মদিনে মিশা-ডিপজলের ফুলেল শুভেচ্ছা
সোহলে রানাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল। ছবি: ফেজবুক থেকে

২১ ফেব্রুয়ারি ছিল ড্যাশিং হিরো ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সোহেল রানার জন্মদিন। বিশেষ এই দিনে নায়কের উত্তরার বাসায় গিয়ে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল। এসময় সঙ্গে ছিলেন সোহেল রানার ছোট ভাই নায়ক রুবেল। রাতে মিশা তার ফেসবুকে সেই ছবি পোস্ট করে বার্তা দিয়ে ক্যাপশনে লিখেন ‘আজ ভাইয়ের জন্মদিন আমরা সবাই তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করি।শুভ জন্মদিন ভাইয়া।’

সামনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৫ মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। এবারের শিল্পী সমিতির নির্বাচনে জোট গঠন করেছেন চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় দুই খল-অভিনেতা মিশা সওদাগর  ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল। একই প্যানেলে থাকছেন চিত্রনায়ক রুবেল্ও। জানা গেছে, শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে নির্বাচনে দোয়া নিতে ভুলেননি দুই শিল্পী। সোহেল রানাকে সামনে রেখে এর আগে প্যানেল করেছিলেন মিশা ও জায়েদ খান। তারা বিজয়ী হয়েছিলেন।

জনপ্রিয় অভিনেতা সোহেল রানা ঢাকার মিডফোর্ট হাসপাতালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৯৪৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি।৭৪তম জন্মদিনে প্রতিবারের মতো এবারও পরিবারের সঙ্গে দিনটি কাটিয়েছেন।

১৯৭৩ সালে সোহেল রানা নাম ধারণ করে কাজী আনোয়ার হোসেনের বিখ্যাত কাল্পনিক চরিত্র ‘মাসুদ রানা’র একটি গল্প অবলম্বনে ১৯৭৪ সালে ‘মাসুদ রানা’ ছবির নায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন এবং একই ছবির মাধ্যমে তিনি মাসুদ পারভেজ নামে পরিচালক হিসেবেও যাত্রা শুরু করেন। এখানে তার বিপরীতে ছিলেন মিষ্টি মেয়ে খ্যাত কবরী। এরপর অসংখ্য ছবি তিনি উপহার দিয়েছেন অভিনয়ের মুগ্ধতা ছড়িয়ে।

দীর্ঘ চলচ্চিত্র জীবনে সোহেল রানা তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। ব্যক্তিজীবনে সোহেল রানা ১৯৯০ সালে বিয়ে করেন ডা. জিনাত পারভেজকে। তাদের সুখের দাম্পত্যে একমাত্র সন্তান মাশরুর পারভেজ জিবরান। বাবার পথ ধরে মাশরুরও চলচ্চিত্রে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

Link copied!