• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ৬ শাওয়াল ১৪৪৫

বুবলীর আচরণ গলাটিপে ধরার মতো : পরীমনি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ৩, ২০২৪, ০৮:৩৫ এএম
বুবলীর আচরণ গলাটিপে ধরার মতো : পরীমনি
পরীমনি ও বুবলী। ছবি : সংগৃহীত

আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। দেশের গন্ডি পেরিয়ে অভিনয় করছেন কলকাতায়। দেশের নিমোর কাজ নিয়েও ব্যস্ত সময় পার করছেন জনপ্রিয় এই নায়িকা। সিনেমার কাজের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিতর্কে  জড়িয়ে আছেন পরী। সব বিষয় নিয়ে সম্প্রতি কলকাতার আনন্দবাজার অনলাইনে মুখোমুখি হয়েছেন আলোচিত এই অভিনেত্রী।

পরীকে প্রশ্ন করা হয় সম্প্রতি বুবলীর ওপর রেগে গিয়েছিলেন? উত্তরে পরী বলেন, ‘না, একদমই রেগে যাইনি। প্রতিটা মানুষের আবেগ প্রকাশের ধরণ আলাদা। বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছিল ভিডিও নিয়ে। 

আমার ছেলের জন্মদিনে একটি ভিডিও দিয়েছিলাম। আর ভিডিওটা ছিল আমার আবেগের বহিঃপ্রকাশ। তার ছেলের বয়স চার বছর, এতোগুলো বছরে মনে হলো না! যখন আমি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর পাই, তার তিন মিনিটের মধ্যে এই খবর জানতে পারেন দর্শকেরা। হঠাৎই “বেবি বাম্প” নিয়ে হাজির হইনি আমি। 

আমার আবেগ আচমকা আসে না। আমার ধারণা, তিনি অন্যভাবে কিছু করতে পারতেন। তার নিশ্চয়ই সুন্দর একটা জার্নি আছে। কিংবা তিনি বলতে পারতেন, এই ধরন সোজা লেগেছে, সেখান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে করেছেন। সেটা না করে আমার গলা টিপে ধরার মতো অবস্থা, কেন আমি বললাম! শুনেছি, তিনি শিক্ষিত! শিক্ষিত হয়ে একটা কাণ্ড করে বসেছ, আবার সেটার জন্য লড়াইও করছ! এটা শোভনীয় নয়।’

‘সিঙ্গেল মাদার’ জার্নি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে পরী বলেন, ‘এই সফর খুব আনন্দেই কাটাচ্ছি। মনে হয়, একা হাতে ছেলেকে খুব ভালোভাবেই বড় করতে পারব। যে সম্পর্কটা ছিল, সেটা থাকলে ওর বড় হওয়ার পথে আরও প্রতিবন্ধকতা বাড়ত। আসলে আমার ছেলে আমাকে বোঝে, আমার কথা শোনে। ভীষণ মিশুক।’

চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে সম্পর্ক কেমন, এমন প্রশ্নের জবাবে পরী বলেন, ‘কাউকে উদ্দেশ্য করে কিছু বলিনি। আগে তিনি হয়তো এসে জিজ্ঞেস করবেন, কেন বললাম। যা– হোক, খুব সিরিয়াস কিছু নয়, সবটাই মজা করে বললাম।’

এসময় অপু বিশ্বাসের প্রসঙ্গ উঠতেই পরী বলেন, ‘না, আসলে অপুদি এর মাঝে নেই। তিন মাস ধরে আমাদের কথাই হয়নি। আমার সঙ্গে অপু বিশ্বাসের ভালো সম্পর্ক, যেটা আর দশজন নায়িকার সঙ্গেও আমার আছে। আলাদা কোনো খাতির নেই।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যক্তিগত জীবনের খুঁটিনাটি দেওয়াটা সমীচীন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে পরী বলেন, ‘আমাকে যেমন দেখতে লাগে, আমি ঠিক সে রকমই- বাইরে ও ভেতরে। আমার মধ্যে কোনো ফিল্টার নেই। রাগটাও দেখা যায়। মনখারাপ দেখা যায়, কিছু পুষে রাখি না। আমার জীবনটা সিনেমা নয়, অত ফিল্টার দিতে পারব না। আমাকে পোষালে ভালো, না পোষালে আরও ভালো।’

গত ২১ মার্চ ছিল বুবলীর ছেলে শেহজাদ খান বীরের জন্মদিন। বিশেষ সেইদিনে ছেলেকে নিয়ে বুবলী আবেগঘন একটি ভিডিও পোস্ট করেন। ভিডিওটি দেখে ক্ষুব্ধ পরীমনি অভিযোগ করেন সেটা ‘কপি’ করা। পরে তিনি বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। এরপরই বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন জনপ্রিয় দুই নায়িকা।


 

Link copied!