• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,

দেশে প্রথম ডিজিটাল সার্টিফিকেট পাবেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা


শাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২৩, ০৩:০১ পিএম
দেশে প্রথম ডিজিটাল সার্টিফিকেট পাবেন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সার্টিফিকেট প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) প্রশাসন। এর ধারাবাহিকতায় দেশের অন্যতম ‘প্রত্যয়নকারী কর্তৃপক্ষ’ রিলিফ ভ্যালিডেশন লিমিটেড সার্টিফায়িং অথরিটির (আরভিএল সিএ) সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-২ এর কনফারেন্স রুমে এক সভার মাধ্যমে এই চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানায়, এই চুক্তির মাধ্যমে শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা ডিজিটাল সার্টিফিকেটের অনেকগুলো সুবিধা ভোগ করবে। সার্টিফিকেটের জন্য অনলাইনে আবেদন ও উত্তোলন করতে পারবে। সার্টিফিকেট ডিজিটাল স্বাক্ষরিত হবার কারণে প্রতিটি সার্টিফিকেট ডিজিটালি অনান্য পরিচয় বহন করবে।

জানা যায়, ডিজিটাল স্বাক্ষরের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য উপকারিতা এর সুরক্ষা বৈশিষ্ট্যে। ইস্যুকৃত ডিজিটাল সার্টিফিকেট যেকোনো ধরনের জালিয়াতি বা প্রতারণা থেকে সুরক্ষা দিতে এতে কিছু নিরাপত্তা উপাদান যুক্ত করা থাকে, যেটাকে এনক্রিপশন প্রযুক্তি বলা হয়। এতে করে নিশ্চিত করা যায় যে, সার্টিফিকেটে কোনো পরিবর্তন হয়নি এবং স্বাক্ষরটি বৈধ।

এই চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশের শিক্ষাঙ্গন আজ এক নতুন যুগে প্রবেশ করেছে বলে জানান রিলিফ ভ্যালিডেশন লিমিটেডের ডিরেক্টর শাফকাত মতিন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, “ডিজিটাল সিগনেচার প্রযুক্তির ব্যবহার বৈশ্বিকভাবে স্বীকৃত এবং আইনগতভাবে সিদ্ধ বলে ইস্যুয়িং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাপ্ত সার্টিফিকেটের বৈধতা নিয়ে সংশয়ের বিষয়টি আর থাকবে না। এতে করে চলমান দীর্ঘমেয়াদি যাচাইকরণ প্রক্রিয়াটি দ্রুততর হবে। শিক্ষার্থীদের  মাধ্যমে প্রাপ্ত ডিজিটাল সার্টিফিকেট যেকোনো যথাযথ কর্তৃপক্ষ (যেমন অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়, ভিসা ইস্যুকারী এম্বাসি ইত্যাদি) অবিলম্বে যাচাই করতে সক্ষম হবে। দেশের প্রথম পাবলিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে শাবিপ্রবির এই উদ্যোগটি ‘স্মার্ট বাংলাদেশ ২০৪১’ এর রূপকল্পকে নিঃসন্দেহে বেগবান করবে।”

শিক্ষা বিভাগের আরো খবর

Link copied!