• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শোক দিবস পালন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১৫, ২০২২, ১১:৩১ পিএম
বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শোক দিবস পালন

আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট। জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এই দিনে সেনাবাহিনীর কিছুসংখ্যক বিপথগামী সদস্য ধানমন্ডির বাসভবনে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবার হত্যা করে। বঙ্গবন্ধুর ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে দেশব্যাপী শোক র‌্যালি, পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী অঙ্গ-সংগঠন। সেই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়েও শোক দিবস পালন করা হয়।

ঢাবি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। বুয়েটের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারেও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তারা। এ সময় তারা “জয় বাংলা” স্লোগান দিতে থাকেন। স্লোগানের এক পর্যায়ে বলতে থাকেন, “হই-হই রই, জামাত-শিবির গেলি কই, জামাত-শিবিরের আস্তানা ভেঙে দাও গুড়িয়ে দাও”।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান ভবন ও হলগুলোতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ মসজিদুল জামিয়াসহ প্রত্যেক হল ও আবাসিক এলাকার মসজিদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল এবং বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার অন্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়।

জবি

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুজিব মঞ্চে মুজিব প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, রেজিস্ট্রার, প্রভোস্ট, বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক-শিক্ষিকা, প্রক্টর, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা, সাংবাদিক প্রতিনিধি ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

রাবি

শোক র‌্যালি শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলের সামনে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি)প্রেসক্লাব সদস্যরা। এরপর ক্লাব সদস্যদের নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ’ শীর্ষক উপস্থিত বক্তৃতা, দেশাত্মবোধক গান ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতার আয়োজন করে সংগঠনটি। অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন ও তার রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়।

শাবি

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) শোক দিবসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেনের সঞ্চালনায় ও অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও শাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম।

ইবি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে শোক র‌্যালি, শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণ করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) বঙ্গবন্ধু পরিষদ। এরপর বাদ জোহর মমতাজ ভবন চত্বরে দোয়া মাহফিল, খাবার বিতরণ ও ভোজের আয়োজন করেন সংগঠনটি।

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন ইবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক  ড. মো. মাহবুবুল আরফিন।

কুবি

বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদাতবার্ষিকীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি)। র‍্যালি ও বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ৪১১ নম্বর রুমে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র নন্দীর সভাপতিত্বে ও শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মোকাদ্দেস-উল-ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন। এছাড়া বিশেষ অথিতি হিসেবে ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: আসাদুজ্জামান।

মাভাবিপ্রবি

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শোক দিবসে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। জাতীয় পতাকা, কালো পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. ফরহাদ হোসেন। সঙ্গে ছিলেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ আর এম সোলাইমান ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. সিরাজুল ইসলাম।

নোবিপ্রবি

জাতীয় শোক দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করেছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (নোবিপ্রবিসাস)। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য ও নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির প্রধান পৃষ্ঠপোষক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ দিদার-উল-আলম, নোবিপ্রবি উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড.মোহাম্মদ আব্দুল বাকি, সংগঠনটির উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির পরিচালক অধ্যাপক ড. সেলিম হোসেন।

পাবিপ্রবি

১৯৭৫-এর ১৫ আগস্টের শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করেছে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (পাবিপ্রবি) পরিবার। সকালে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়। শিক্ষক- শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কালোব্যাচ ধারণ করেন। সকাল সাড়ে নয়টায় প্রশাসনিক ভবন হতে শোক র‌্যালি বের হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে জাতির পিতার জম্মশতবর্ষ স্মারক ম্যুরাল জনক জ্যোতির্ময়ে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ শহীদদের স্মৃতির প্রতি পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান ও রেজিস্ট্রার বিজন কুমার ব্রহ্ম।

শিক্ষা বিভাগের আরো খবর

Link copied!