• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

কামড়ের পর ‘সাপসহ রোগী’ নিয়ে হাসপাতালে স্বজনরা


রাজবাড়ী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২৪, ০৪:৩৩ পিএম
কামড়ের পর ‘সাপসহ রোগী’ নিয়ে হাসপাতালে স্বজনরা

রাজবাড়ীর পাংশার কসবামাজাইলে সাপে কাটা দুই ভাই-বোনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় দংশন করা সাপটি মেরে সেটি নিয়ে হাসপাতালে হাজির হন স্বজনরা।

সোমবার (২৪ জুন) পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শারমিন আহমেদ তিথী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রোববার (২৩ জনু) রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাদের পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সাপে কাটা রোগীরা হলো পাংশা উপজেলার কসবামাজাইল ইউনিয়নের সুবর্ণখোলা গ্রামের উজির মন্ডলের ছেলে রিফাত (১৫) ও মেয়ে জান্নাতি (৬)।

জানা যায়, রোববার রাতে রিফাত ও জান্নাতিকে তাদের বাড়ির পাশ থেকে সাপে কামড়ায়। পরে দ্রুত তাদের পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন স্বজনরা। এ সময় তাদের দংশনকৃত সাপটিকে মেরে সঙ্গে করে আনা হয়। সঙ্গে আনা সাপ দেখে এবং রোগীদের পরীক্ষা করার পর চিকিৎসক ডা. এনাম নিশ্চিত হন এটি কোনো বিষধর সাপ না।

তারপরও রোগীরা সম্পূর্ণ বিপদমুক্ত কি না তা নিশ্চিত হতে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসহ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে ডা. শারমিন আহমেদ তিথী বলেন, “আমার নিজের তত্ত্বাবধানে যথাযথ চিকিৎসা দিয়ে সাপে কামড়ানো দুই রোগীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তারা সুস্থ আছে। তারপরও পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। রোগীদের সঙ্গে আনা সাপটি দেখে মনে হচ্ছে এটি কোনো বিষধর সাপ নয়।”

Link copied!