• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জুন, ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১,

বাজবল স্টাইলে খেলতে পারবে না ভারত


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২৩, ০৪:২৭ পিএম
বাজবল স্টাইলে খেলতে পারবে না ভারত
ফাইল ছবি

টেস্ট ক্রিকেটের মিনিংটাই বদলে দিয়েছে ইংল্যান্ড। ব্রেন্ডন ম্যাককালামের অধীনে ইংশিরা টেস্ট খেলছেন অনেকটা ওয়ানডে কিংবা কখনও টি-টোয়েন্টি মেজাজে। আর এই খেলার স্টাইলকে তারা নাম দিয়েছে বাজবল। এর এই স্টাইলের খেলার পক্ষে কথা বলছে কেউ, আবার বিপরীতেও আছে অনেক জন। তবে যে যা-ই বলুক না কেন, রবিচন্দ্রন অশ্বিন জানালেন বাজবল স্টাইলে খেলতে পারবে না তার দেশ ভারত।

সম্প্রতি অ্যাশেজেও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাজবল স্টাইলে খেলেছে তারা। প্রথম দুই ম্যাচ হারলেও ঘুরে দাঁড়িয়ে শেষ পর্যন্ত সিরিজ ২-২-এ ড্র করেছে ইংল্যান্ড।

অস্ট্রেলিয়া অবশ্য খেলে গেছে টেস্টের মতো করেই। সিরিজে ইংল্যান্ড যেখানে তুলেছে ওভারপ্রতি ৪.৭৪ করে রান। অস্ট্রেলিয়ার ওভারে রান রেট সেখানে ছিল ৩.৩৫। দুই দলের ব্যাটিংয়ের ধরনের পার্থক্য ছিল স্পষ্টই।

ইংল্যান্ডের এই স্টাইলের মতো করে যদি সামনে ভারত খেলতে যায়, তাহলে ঘটনাটি কী দাঁড়াবে সেটি  নিয়ে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এ অফ স্পিনার বলেছেন “ আমরা এখন বেশ ভালো ক্রিকেট ম্যাচ খেলছি। কিন্তু শিগগিরই আমরা একটি পালাবদলের মধ্য দিয়ে যাব। তখন খেলাটা আমাদের জন্য বেশ কঠিন হয়ে যাবে। ধরা যাক, এই পালাবদলের সময়ে ভারত বাজবল খেলা শুরু করল। ধরা যাক হ্যারি ব্রুকের মতো সব বলেই ব্যাট চালাল কেউ, এরপর আউট হয়ে গেল, আমরা দুটি ম্যাচ হারলাম। এরপর আমরা কী করব?”

সেটার উত্তরটাও দিয়েছেন তিনি। অশ্বিন বলেন, “ আমরা কি বাজবল এবং খেলোয়াড়দের সমর্থন দেব? আমরা একাদশ থেকে অন্তত চারজনকে বাদ দেব। আমাদের সংস্কৃতি সব সময়ই এমন ছিল। ফলে অন্যদের কাজে এসেছে মানেই আমরা অন্যদের ধরন নকল করতে পারব না। ”

তবে ইংল্যান্ড কীভাবে এই স্টাইলে খেলছে সেটাও ব্যাখ্যা করেছেন অশ্বিন। তিনি বলেন, “ এটি তাদের কাজে দিয়েছে। কারণ, তাদের খেলার ধরনের সঙ্গে ম্যানেজমেন্ট পুরোপুরি একমত। নির্বাচকরা খেলোয়াড়দের এভাবে খেলতে উৎসাহ দেয়। এমনকি তাদের দর্শক, যারা টেস্ট ম্যাচ দেখে তারাও এ প্রক্রিয়াকে সমর্থন দেয়। আমরা সেটি পারব না।”

Link copied!