• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

ঈদ উপলক্ষে জমজমাট টুপি-আতরের বাজার


জাহিদ রাকিব
প্রকাশিত: এপ্রিল ২০, ২০২৩, ০৯:০৩ পিএম

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। ঈদে নতুন জামা-কাপড় কেনার পাশাপাশি টুপি, জায়নামাজ ও আতরের দোকানে ভিড় করেন লোকজন। এসব জিনিসপত্র কিনতে দোকানগুলোতে ক্রেতাদের আগ্রহ যেন বেশি। সুরমা, আতর, টুপি, তসবিহ, মেসওয়াক আর জায়নামাজের দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভিড় দেখা যাচ্ছে।

বায়তুল মোকাররম এলাকা ঘুরে দেখা যায়, খুশবু স্টোর ও ভ্রাম্যমাণ দোকানগুলোতে টেবিলে ও র‌্যাকে সাজানো আতর, সুরমা, টুপি। পাশাপাশি জায়নামাজ, তসবি কিনতে দেখা গেছে।

দোকানগুলোতে সৌদি আল রিহাব কোম্পানির ৬ মিলিগ্রাম ১৮০ থেকে ২৫০ টাকায়, ভারতের আল নাঈম কোম্পানির ৮ মিলিগ্রাম বোতলের আতর ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া দেশি কোম্পানি ফারহানের আতর ৬ মিলি ২০০ থেকে ২৫০ টাকায় এবং আলিফ কোম্পানির আতর ১৫০ থেকে ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বায়তুল মোকাররমের ঊর্মি এম্পেরিয়াম হাউসের দোকানি ফয়েজ আহমেদ সংবাদ প্রকাশকে বলেন, জায়নামাজ, টুপির সঙ্গে আতর ও তসবিহ ভালো বিক্রি হয়েছে। আমার দোকানে ৫০ টাকা থেকে চার হাজার টাকা দামের আতর বিক্রি হচ্ছে। কস্তুরি অর্থাৎ মেশক আম্বার বিক্রি হচ্ছে প্রতি মিলি চার হাজার টাকায়।” 
আরেক ব্যবসায়ী ইয়াছিন জানান, কম দামের আতরের মধ্যে দুবাইয়ের হারামাইন আতর প্রতি ১৫ মিলিগ্রাম ৪৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আতর বিক্রেতা রফিকুল ইসলাম সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “বেচা বিক্রি মোটামুটি ভালো। আমাদের দেশে ইন্ডিয়ান, দুবাই ও সৌদি আরবের আতর বেশি চলে। এসব আতরের দাম ৩০০ টাকা থেকে হাজার টাকা পর্যন্ত। যেমন অ্যাসেল, ডি’আভ, অ্যাপল, আইসবার, যানাশিন, বেস্ট, এক্সপোর্ট, ডার্ক, অরেঞ্জ, রোজ মাস্ক, ম্যাগনেট, হোয়াইট মাস্ক ও নাজিমন।”

টুপি কিনতে বায়তুল মোকাররমে এসেছেন শরিফুল ইসলাম। তিনি সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “বাচ্চার জন্য টুপি নিতে এসেছি। পাঞ্জাবির সঙ্গে মিলায়ে টুপি পড়বে বলে বাহানা ধরেছে। তাই বাধ্য হয়েই নিজের জন্য ও বাচ্চার জন্য টুপি কিনতে এসেছি। ঈদ উপলক্ষে দাম কিছুটা বেড়েছে দাম।”

টুপি কিনতে আসা কবির আহম্মেদ সংবাদ প্রকাশকে বলেন, “ঈদের সব ধরনের কেনাকাটা শেষ হয়েছে। এখন টুপি কিনতে এসেছি। দাম মোটামুটি ঠিক আছে।”

এদিকে গুলিস্তান, পল্টন ও বায়তুল মোকাররম এলাকায় দেশি টুপির পাশাপাশি তুর্কি, পাকিস্তানি, চীনা, ইন্ডিয়ান টুপিও বিক্রি হচ্ছে। পাকিস্তানি টুপি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৭০০ টাকায়, কাশ্মীরি টুপি ২০০ থেকে ৮০০ টাকায়, জিন্নাহ ও নেয়ামত টুপি এক হাজার ৮০০ থেকে তিন হাজার টাকায়, কাজ করা টুপি ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকায়, স্টোন টুপি ১১ হাজার থেকে এক হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
 

Link copied!