• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

কীভাবে বুঝবেন কোন সহকর্মী আপনাকে হিংসে করেন?


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২৪, ০৪:৫০ পিএম
কীভাবে বুঝবেন কোন সহকর্মী আপনাকে হিংসে করেন?
ছবি: সংগৃহীত

কর্মজীবীদের দিনের অধিকাংশ সময়ই কাটে কর্মক্ষেত্রে। একসঙ্গে কাজ করতে করতে সহকর্মীদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে উঠে। প্রতিদিন সকালে একসঙ্গে কাজে আসা, কাজে সহযোগিতা করা, কাজের ফাঁকে খানিকটা আড্ডা, একসঙ্গে চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে খোশগল্প, মতবিনিময়, কষ্টের কথা শেয়ার করা কতকিছুরই না সঙ্গী হন সহকর্মীরা। সব সহকর্মীর সঙ্গে কিন্তু সখ্যতা হয় না। এরইমধ্যে কেউ কেউ হয়তো আপনার সঙ্গ এড়িয়ে চলেন। বলা যায়, কেউ কেউ হয়তো আপনাকে কর্মক্ষেত্রে ঈর্ষাও করেন। আবার সখ্যতা থাকা কেউ কেউ আপনার প্রতি ঈর্ষান্বিত হতে পারেন।

‘অমুকের সব ভালো হচ্ছে, আর আমার কিছু হচ্ছে না!’— এমন মনোভাব থেকেই ঈর্ষার জন্ম হতে পারে। মনোবিদরা বলেন, ঈর্ষা শরীর ও মনের জন্য বিপজ্জনক। যা থেকে অপরের ক্ষতি করার ইচ্ছে জাগে। পরবর্তী সময়ে আবার অপরাধ মানসিকতাও দেখা যায়।

কর্মক্ষেত্রে এমন পরিস্থিতি নতুন কিছু নয়। হয়তো কেউ আপনার সামনে খুব ভালো, কিন্তু আড়ালে মোটেও আপনার ভালোটা চাচ্ছেন না। এমন সহকর্মীকে চেনার উপায় কী! মনোবিদরা জানান,  কয়েকটি লক্ষণে আপনি হিংসুটেদেরকে চিহ্নিত করতে পারবেন। আর তাদের থেকে নিজেকে সতর্ক রাখতে পারবেন। চলুন জেনে নেই সেই লক্ষণগুলো কী কী_

  • কর্মক্ষেত্রে সহকর্মীরা কাজে সহযোগিতা করেন। কিন্তু কেউ যদি সর্বদা  আপনার খুঁত ধরেন এবং আপনার কথায় ব্যঙ্গ করেন তবে বুঝে নেবেন সে আপনাকে ঈর্ষে করে। এমন মানুষ থেকে সাবধান থাকুন।
  • কর্মক্ষেত্রে আপনার ভালো কাজের প্রশংসা সবাই করবে। কিন্তু যিনি আপনাকে ঈর্ষে করে তাদের মুখে কখনোই প্রশংসা শুনবেন না। আপনি তার উপকার করলেও কৃতজ্ঞতা পাবেন না।
  • সহকর্মীদের কেউ যদি আপনাকে বার বার অযাচিত ভাবে উপদেশ দেন, আর আপনার জন্য সঠিক না এমন কাজ করতে বলেন তবে বুঝে নেবেন সেখানে ঈর্ষে রয়েছে। এমন মানুষ থেকে দূরে থাকুন।
  • কর্মক্ষেত্রে আপনি যে কাজই করছেন তাতেই বাধা দিচ্ছেন কিংবা এমন পরিস্থিতি তৈরি করেন যেন আপনি কাজটি না করতে পারেন, বুঝে নিবেন সেই মানুষটি আপনাকে ঈর্ষে করে।
  • আপনার কোনো কাজ নকল করে নিজেই হয়তো প্রশংসা নিচ্ছেন। আপনার কাজের কদর করছেন না কিংবা আপনার কাজের ক্রেডিটও নিজেই নিচ্ছেন, বুঝে নেবেন সেই সহকর্মী আপনার প্রতি ঈর্ষাকাতর।
  • কর্মক্ষেত্রে আপনার পিছনে কেউ যদি কোনও গুজব রটায় কিংবা আড়ালে আপনাকে নিয়ে হাসাহাসি, কটূক্তি করেন তবে বুঝে নেবেন ঈর্ষা থেকেই এসব করছেন।
  • আপনার খুব কাছের সহকর্মী হঠাৎ যদি দেখেন তার আচরণে বদল আসে, ব্যবহারে বদল আসে তবে বুঝে নেবেন আপনার প্রতি তার ঈর্ষে হচ্ছে। সে হয়তো আপনার সামনে ভালো আচরণ করছেন কিন্তু আড়ালে গিয়ে আপনার ক্ষতি করছেন বা খারাপ কথা বলছেন। এমন মানুষ থেকে সাবধান হোন।
  • সহকর্মীদের সঙ্গে কতকিছুই না শেয়ার করা হয়। তবে কোনো সহকর্মীর সঙ্গে সখ্যতা হলো, সে যদি আপনার ব্যক্তিগত কথা জেনে নিচ্ছেন কিন্তু নিজের ব্যক্তিগত জীবনকে গোপন রাখছেন, এমন মানুষ থেকে সাবধান হোন। এতে আপনার দুর্বলতা তার কাছে স্পষ্ট হয়ে যাবে। আর সে সুযোগ বুঝে আপনার ক্ষতি করতে পারে।
Link copied!