• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে গেলেই জেল-জরিমানা!


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২১, ১০:১২ এএম
স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে গেলেই জেল-জরিমানা!

বিশ্বের এমন কিছু দেশ রয়েছে, যেখানে ন্যূনতম পদক্ষেপ বা কার্যকলাপ ক্ষতিকর বলে মনে হতে পারে। যা আপনাকে আইনি ঝামেলায় ফেলতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, আপনার স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়া। হ্যাঁ, আপনি ঠিক পড়েছেন। স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়ায় আপনি আইনি ঝামেলায় পড়তে পারেন।

বছর ঘুরে জন্মদিন আসে। বিশেষ দিনটি পালন করা হয় বিশেষ মানুষটির সঙ্গে। কিন্তু বিশেষ মানুষটিই যখন জন্মদিনের কথা ভুলে যায়, তখনই শুরু হয় মান-অভিমান। সাধারণত জন্মদিন কিংবা বিবাহবার্ষিকীর তারিখ বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ছেলেরাই ভুলে যায়। মেয়েরা তো সময় গুনতে থাকে বিশেষ দিনটি কবে আসবে। ছেলেরা এই বিষয়ে একটু উদাসীনই হয়।

কিন্তু এবার ছাড় নেই, স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে গেলে স্বামীকে জেল-জরিমানাও করা হবে। এই আইন জারি করেছে প্রশান্ত মহাসাগরের দেশ সামোয়া। ভুলোমনের স্বামীদের জন্য নতুন এই আইন জারি করেছে দেশটি। 

প্রশান্ত মহাসাগরের পলিনেশিয়ান অঞ্চলের সামোয়া নামের সুন্দর দ্বীপটি স্বর্গের মতো সুন্দর হলেও অসতর্ক স্বামীদের জন্য এটি নরক হতে পারে।

স্বামী জন্মদিন ভুলে গেলে স্ত্রীর তো অভিমান হতেই পারে। স্বামী বেচারাও নানা কৌশলে সেই মান ভাঙান। কিন্তু স্ত্রীর জন্মদিন ভোলার জন্য রীতিমতো আইন করে জেল-জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সামোয়ার সরকার।

সামোয়ার আইন অনুযায়ী, সেই দেশের কোনো স্বামী যদি ভুলবশত তার স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যায়, তাহলে সেটা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধে এ জন্য পুলিশে অভিযোগও করতে পারবে। অভিযোগ প্রমাণ হলে স্বামীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে জেল-জরিমানাও হতে পারে।
 
দেশটির আইনজীবীরা বলছেন, বিষয়টিতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। ভুলোমনের স্বামীদের ভুল শোধরানোর জন্যই এই আইনি ব্যবস্থা।
 
আইনে আরও বলা হয়, কোনো স্বামী প্রথমবার স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে গেলে  তাকে পুলিশ সতর্ক করবে। যেন পরের বছর এমনটা না হয়। কিন্তু স্বামীর ভাগ্য খারাপ হলে এবং পরের বছরও একই ধরণের ভুলের জন্য় জেল-জরিমানা হতে পারে।

বিশ্বজুড়ে এমন অনেক অদ্ভুত আইন রয়েছে। উত্তর কোরিয়ায় নীল জিন্স পরে বাড়ি থেকে বের হওয়া বেআইনি বলে বিবেচিত হয়। পূর্ব আফ্রিকায় সাধারণ মানুষ জগিং করতে পারেন না, কারণ এটি দেশে নিষিদ্ধ।

সিঙ্গাপুরে চুইংগাম নিষিদ্ধ করা হয়েছে, কারণ এটি নোংরা সৃষ্টি করে। অন্যদিকে ওকলাহোমাতে আইন রয়েছে, কুকুরের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করলে আপনাকে কারারুদ্ধ করা হবে।



সূত্র: সামোয়া অবজারভ

Link copied!