• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১, ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

একসঙ্গে ১৬ জায়গায় চাকরি, অবশেষে ধরা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২৩, ০৩:৫৩ পিএম
একসঙ্গে ১৬ জায়গায় চাকরি, অবশেষে ধরা
প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)

সম্প্রতি প্রকাশিত খবরে দেখা গিয়েছে চীনে তরুণদের বেকারত্বের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্রমাগত। অথচ, দেশটির এক নারী একসঙ্গে ১৬ জায়গায় চাকরি করছিলেন তিন বছর ধরে। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি তার। এক চাকরির সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে গ্রেপ্তার হন তিনি। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই নারীর নাম গুয়ান ইউ। তিনি ক্লায়েন্টের সঙ্গে দেখা করার কথা বলে অন্য জায়গায় চাকরিতে যেতেন। তিনি তার কাজের বিস্তারিত বিবরণ লিখে রাখতেন। এর মধ্যে ছিল কাজ শুরুর তারিখ, পদবি, প্রতিষ্ঠানের নাম, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর। ফলে, কোথায় কোন প্রতিষ্ঠানের জন্য কাজ করছেন তা গুলিয়ে ফেলতেন না।

এছাড়া অফিসের বাইরে থেকে অফিসের গ্রুপ চ্যাটে নিয়মিত ছবি পাঠাতেন তিনি। যার মাধ্যমে অফিসকে বোঝাতেন, তিনি ক্লায়েন্টের সঙ্গে মিটিংয়ে আছেন। অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে চাকরির প্রস্তাব পেলে, তা টাকার বিনিময়ে অন্যদের কাছে বিক্রিও করতেন গুয়ান।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গুয়ান তার স্বামী চেন কিয়াংয়ের সঙ্গে সাংহাইতে একটি বাড়ি কেনার জন্য টাকা জমানোর চেষ্টা করছিলেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে তার এই প্রতারণা ধরা পড়ে যায়।

লিউ জিয়ান নামের এক ব্যক্তি তার কোম্পানির জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিলে, গুয়ান তাতে যোগ দেন। কিন্তু তার দাবি করা যোগ্যতা স্বরুপ কাজ তিনি দেখাতে না পারলে লিউ জিয়ানের সন্দেহ হয়। তিনি গুয়ানের কাগজপত্রে কিছু অসঙ্গতি খুঁজে পান। পরে আবিষ্কার করেন গুয়ান তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। প্রতারিত হয়ে লিউ পুলিশের কাছে এ ব্যাপারে অভিযোগ জানান। অবশেষে একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরির সাক্ষাৎকারের সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এই ঘটনা তদন্তের পর পুলিশ জানতে পারে গুয়ান ও কিয়াং দম্পতির একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট আছে এবং সেগুলোতে সন্দেহজনক লেনদেন দেখা যায়।

Link copied!