• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

‘তুফান’ দেশের কালো ছায়াকে শেষ করে দেবে : শাকিব খান


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৪, ১২:১৬ পিএম
‘তুফান’ দেশের কালো ছায়াকে শেষ করে দেবে : শাকিব খান
শাকিব খান। ছবি: সংবাদ প্রকাশ

ঈদে মুক্তি পেতে যাচ্ছে শাকিব খান অভিনীত বহুল আলোচিত সিনেমা তুফান। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন রায়হান  রাফী। শাকিব খান ও রায়হান রাফীসহ ‘তুফান’ টিম নিয়ে রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় বুধবার (১২ জুন)।

  সংবাদ সম্মেলনে তুফান সিনেমার নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন তুফান টিম।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত  ছিলেন নির্মাতা রায়হান রাফী, ঢালিউড কিং শাকিব খান, নাবিলা, চঞ্চল চৌধুরী, চরকির কর্ণধার রেদোয়ান রনিসহ অনেক কলাকুশলীদের। তাছাড়া এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে কলকাতা থেকে বাংলাদেশে এসেছেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী।

সংবাদ সম্মেলনে শাকিব খান বলেন, ‘ আমি যখন প্রথম তুফানের গল্প শুনি, তখন আসলে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না এটা পর্দায় তুলে ধরা কীভাবে সম্ভব। রাফীকে প্রশ্ন করেছিলাম, ও আমাকে অভয় দিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত কী দারুণভাবে সিনেমাটি শেষ করা হয়েছে আমি সত্যি গর্ববোধ করছি রাফীকে নিয়ে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তুফান’ সিনেমাটি একদিকে ক্লাসিক্যাল অন্যদিকে কর্মাশিয়াল। মানুষ এখন ভালো জিনিসের মর্ম বোঝে। হলিউড বলিউড সিনেমার পাশে আমার সিনেমা কেন চলবে? হ্যাঁ চলবে, সিনেমার কোয়ালিটির জন্য। আমি এখন খুব বেছে বেছেই সিনেমা করছি। কারণ দিনশেষে কোয়ালিটিফুল সিনেমাই মানুষ দেখতে চায়। ‘তুফান’ তেমনই একটি সিনেমা। যা দিন দিন বেগবান হচ্ছে। এর গান ও ট্রিজার মুক্তির পর বিশ্বে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। একদিন ইংলিশরাও বাংলা সিনেমা দেখবে। তুফানে এমন একটি গল্প দেশের কালো যে ছায়া তা শেষ করে দেবে।’

রায়হান রাফী শাকিব খানকে নিয়ে বলেন, ‘আমি যখন স্ক্রিপ্ট লিখছিলাম তখন প্রতিটা সিনেই আমার চোখের সামনে শাকিব ভাইকেই কল্পনায় আসছিল। সিনেমাটি আসলে শাকিব খান ছাড়া সম্ভব হতো না। আপনারা শাকিব খানকে একেবারেই অন্য লুকে এখানে অবিষ্কার করতে পারবেন। নতুন এক মেগাস্টারকে খুঁজে পাবেন। ‘তুফান’ দেখার পর মনে হবে। একটা মানুষ এতো ভালো অভিনয় কীভাবে করতে পারে।’

সিনেমাটির প্রসঙ্গে রাফী আরও জানান, ‘আমরা সিনেমাটিতে পুরো বাংলাদেশের মেধাবী মানুষদের সংযুক্ত করতে পেরেছি। আপনারা যে ভিজ্যুয়াল দেখবেন একজন বাংলাদেশি মানুষেরই করা। শাকিব খানের অসাধারণ মেকাপ থেকে শুরু করে সবকিছু মেড ইন বাংলাদেশ।

চঞ্চল চৌধুরী মাইক্রোফোন হাতে নিয়েই বললেন, কিরে তুফান ভয় পাইছিস? এটি সিনেমাটির জনপ্রিয় একটি ডায়ালগ। অসাধারণ গুণী অভিনেতার কথাতেই বোঝা গেল সিনেমাটির আদ্যোপান্ত কি হতে চলেছে। এখন পর্দায় শাকিব-চঞ্চলের কেমিস্ট্রি দেখার পালা।

গত ৭ মে প্রকাশ করা হয়েছিল ১ মিনিট ২২ সেকেন্ডের টিজার। সেখানে অ্যাকশন আর রহস্যে ভরা পুরো সিনেমাতেই টান টান উত্তেজনা অনুভব করেছেন দর্শক।



সিনেমাটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। তার বিপরীতে আছেন কলকাতার অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ও বাংলাদেশের মাসুমা রহমান নাবিলা। গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গেছে দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীকেও।

এ সিনেমায় আরও রয়েছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, ফজলুর রহমান বাবু, গাজী রাকায়েত, একে আজাদ সেতু এবং হাসনাত রিপনের মতো তারকারা। ‘তুফান’ সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে এসভিএফ বাংলাদেশ, আলফা আই ও চরকি। 
 

Link copied!