• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

মমতাজের বিরুদ্ধে আবারও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২৩, ১২:৫৫ পিএম
মমতাজের বিরুদ্ধে আবারও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
মমতাজ বেগম। ছবি: সংগৃহীত

টাকা নিয়েও অনুষ্ঠান করতে না আসায় বিশ্বাস ভঙ্গ, প্রতারণাসহ একাধিক মামলায় জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ও সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের বিরুদ্ধে  আবারও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে ভারতের মুর্শিদাবাদে।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এই মামলায় মমতাজের বিরুদ্ধে এর আগেও তিন বার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল। এর পর তিনি মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়,  গত ৯ আগস্ট মুর্শিদাবাদের মুখ্য বিচারবিভাগীয় আদালতে হাজির হওয়ার কথা ছিল মমতাজের। ৮ আগস্ট বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মমতাজের মামলার চার্জ গঠন করা হবে। তিনি সেদিন উপস্থিত না হলে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হবে।

তখন মমতাজ বাংলাদেশ হাই কমিশনের মাধ্যমে একটি আবেদনপত্র আদালতে দাখিল করে জানান, যে ওই সময়ে তিনি কানাডায় একটি অনুষ্ঠানে থাকবেন। যার ফলে তার পক্ষে আদালতে হাজিরা দেওয়া সম্ভব না। কিন্তু মুর্শিদাবাদের মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট ওই আবেদন খারিজ করে দিয়ে মমতাজের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

জানা গেছে, মুর্শিদাবাদে ২০০৪ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশনের জন্য একটি আয়োজক সংস্থার প্রধান শক্তিশঙ্কর বাগচীর সঙ্গে মমতাজের একটি লিখিত চুক্তি হয়। সেই চুক্তি অনুযায়ী, শক্তিশঙ্করের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মমতাজ নিয়মিত অংশ নিতেন। ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে একটি অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার কথা ছিল তার। এ জন্য তিনি অগ্রীম ১৪ লাখ টাকাও নেনে ওই আয়োজক সংস্থার কাছ থেকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চুক্তি ভঙ্গ করে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হননি মমতাজ। এর পরেই শক্তিশঙ্কর চুক্তিভঙ্গ ও প্রতারণার অভিযোগে মুর্শিদাবাদের মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে তার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

Link copied!