• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ৬ শাওয়াল ১৪৪৫

হোটেলে ফেরদৌসের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আঁখি আলমগীর


মো. বাবুল
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪, ০৯:২৯ পিএম
হোটেলে ফেরদৌসের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আঁখি আলমগীর
হোটেলে ফেরদৌসের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আঁখি আলমগীর। ছবি: ফেসবুক থেকে

আঁখির দীর্ঘদিনের বন্ধু চিত্রনায়ক ও সংসদ সদস্য ফেরদৌস আহমেদ। একসঙ্গে মডেলিং, অভিনয় এবং নাচ করতে দেখা গেছে এই জুটিকে। এবার কক্সকাজারের একটি হোটেলে অন্তরঙ্গভাবে দেখা গেছে দুই তারকা শিল্পীকে। 

লাল শাড়ি পরা আঁখিকে পেছন থেকে আলতো করে জড়িয়ে ধরেছেন ফেরদৌস। অপলক দৃষ্টিতে মিস্টি হাসিতে দুজনে তাকিয়েছিলেন ভালোবাসার অনুভূতিতে। এমনি কিছু ছবি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আঁখি জানালেন অন্তরঙ্গ এই ছবির পেছনের গল্প।

আঁখি জানান, ‘চিত্রনির্মাতা অনন্য মামুনের পরিচালনায় একটি অভিজাত আবাসিক হোটেলের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন তারা। আর এই বিজ্ঞাপনচিত্রে আঁখির মডেল ছিলেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। একটি বিবাহ বার্ষিকীর গল্প নিয়ে বিজ্ঞাপটি নির্মাণ হয়েছে সম্প্রতি। এই বিজ্ঞাপনে তারা স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন।’ নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, বিজ্ঞাপনটি শিগগিরই প্রচার করা হবে।

অভিনয়ে ও গানে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন আঁখি আলমগীর। সঙ্গীতে ক্যারিয়ার গড়ার সেই শৈশবে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‍‍`ভাত দে‍‍` ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অসাধারণ অভিনয় করে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন আঁখি। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর বাবা আলমগীরের পরিচালনায় ‍‍‘একটি সিনেমার গল্প‍‍` ছবিতে গান গেয়ে প্লেব্যাক গায়িকা হিসেবেও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান আঁখি। 

শিশু অভিনেত্রী আর গায়িকা হিসেবে একই ব্যক্তির জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ার মতো এমন বিরল ও দুর্লভ রেকর্ডের অধিকারী এমন  কাউকে এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

নতুন বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেলিং করা প্রসঙ্গে আঁখি আলমগীর বলেন, ‘এর আগেও অনন্য মামুনের নির্দেশনায় বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছি। এটা নিয়ে তার নির্দেশনায় আমার দ্বিতীয় কাজ। মামুনের নির্দেশনা বেশ গোছানো। যে হোটেলের বিজ্ঞাপনচিত্রের কাজ করলাম সেই হোটেলটির পরিবেশ এক কথায় দুর্দান্ত। আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে। বিজ্ঞাপনচিত্রটি প্রচারে এলে সবাই তা অনুভব করতে পারবেন।’

ফেরদৌসের সঙ্গে জুটি বেঁধে বিভিন্ন কাজ করা প্রসঙ্গে আঁখি বলেন,  ‘ফেরদৌসের আমি প্রথম কাজ করি আমার গাওয়া বাবুজি গানটির মিউজিক ভিডিওতে। সেটিই তার প্রথম ও একমাত্র মিউজিক ভিডিওতে মডেল হওয়া। এরপর টিভি চ্যানেলের ঈদের অনুষ্ঠানে আমরা ডুয়েট নাচ করি। ফেরদৌস প্রযোজিত - অভিনীত ‍‍`এক কাপ চা‍‍` ছবিতে আমার নিজের গাওয়া গানের সঙ্গে ফেরদৌসের সঙ্গে একটি অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। এরপর একটি ওভিসি‍‍`তে দু‍‍`জনে জুটিবদ্ধ হয়ে প্রথমবার বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেলিং করি। এবারও বিজ্ঞাপনচিত্রেই কাজ করলাম।’

ফেরদৌসের সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে আঁখি বলেন, ‘আমরা দু‍‍`জন ভিন্ন পেশার মানুষ। তবুও তার সঙ্গে ভিন্ন ভিন্ন প্রচুর কাজ হয়েছে। ফেরদৌস নায়ক আর আমি গায়িকা। আমিই বোধ হয় একমাত্র গায়িকা যে, ওর সঙ্গে মডেলিং, নাচ এবং অভিনয়ের মতো ভিন্ন ভিন্ন কাজ করেছি। ফেরদৌসের সঙ্গে আমার কাজের অভিজ্ঞতা এক কথায় অসাধারণ। তাইতো ওর সঙ্গে এতগুলো কাজ করা।’

বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং শেষে  ঢাকায় ফিরে স্টেজ শোতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন দেশীয় সঙ্গীতের ব্যস্ততম এই কন্ঠতারকা। ২৮ ও ২৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকাতেই তিনটি ভিন্ন শোতে সংগীত পরিবেশন করবেন তিনি।

আঁখি আলমগীরের সর্বশেষ আলোচিত গানগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে টিপটিপ বৃষ্টি, পিয়া গিয়েছে দুবাই, রাজকুমারী, কোথায় রেখেছো আমায়, লায়লা ইত্যাদি। গানের বাইরে প্রায়ই তাকে দেখা যায় বিভিন্ন পণ্যের বিজ্ঞাপনচিত্রে। সর্বশেষ আলমগীর ও রুনা লায়লা‍‍`র সঙ্গে একটি ওভিসিতে মডেল হয়েছিলেন। তিনি প্রথমবার মডেল হন ‍‍`তিব্বত কদুর তেল‍‍` এর বিজ্ঞাপচিত্রে। এরপর এএম পিএম টুথপেস্ট, সুরেশ সরিষার তেল, নোভা ইলেকট্রনিক এর বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছেন।

 

Link copied!