• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

গরমে পরুন আরামদায়ক কুর্তি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ২২, ২০২৪, ০৮:২৯ পিএম
গরমে পরুন আরামদায়ক কুর্তি
ছবি: সংগৃহীত

তীব্র গরম থেকে বাঁচতে আরামদায়ক কাপড় পরতে হয়। সবাই এখন হালকা পোশাককেই প্রাধান্য দিচ্ছে। সেই সঙ্গে স্মার্ট লুকও তো প্রয়োজন। বাড়ির বাইরে যেতে কিংবা অফিসের প্রতিদিনের পোশাক হিসেবে মেয়েরা হালকা পোশাকই বেছে নিচ্ছেন। এর মধ্যে কুর্তি পরায় আগ্রহ বাড়ছে মেয়েদের।

মেয়েরা এখন আরামদায়ক কুর্তিকেই বেছে নিচ্ছেন। দেশিয় ব্র্যান্ডগুলোও কুর্তি কালেকশন ভিন্নতা রেখেছে। কুর্তি এবং টপে যুক্ত করেছে নতুন সব ডিজাইন। উইভিং ডিজাইনের কটন, ক্রেপ সিল্ক, জর্জেট, লিনেন, ডুয়েল টোনের কাপড়ে ফ্লোরাল, জিওমেট্রিক, পেসলে, ট্রাইবাল, এথনিক মোটিফের সুনিপুণ ব্যবহার হচ্ছে গরমের কুর্তিতে। যা যেকোনো পছন্দের বটম ওয়্যারের সঙ্গে দারুন মানিয়ে যায়।

আরামদায়ক আর স্টাইলিশের কথাও ভুলে যায়নি। কুর্তির ডিজাইনে গলায়, হাতা বা বটম লাইনে রাখা হয়েছে বৈচিত্র্য। স্ট্রেইট, এ-লাইন, ফ্লেয়ার্ড প্যাটানের লং এবং শর্ট কুর্তিতে করা হয়েছে এমব্রয়ডারি কাজ। আবার প্রিন্টের কুর্তিতেও হালকা কাজ করা হয়েছে।

তরুণী ও মধ্যবয়স্ক বা বয়স্কদের কথা মাথায় রেখে কুর্তির রঙের ক্ষেত্রেও বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। রঙের মধ্যে রয়েছে লাইট শেডের মধ্যে সী-গ্রিন, স্যালমন, ব্রিক রেড, অনিয়ন রেড, ইয়েলো, পাওডার পিঙ্ক, মউভ পিঙ্ক, কোরাল পিঙ্ক, হোয়াইট, ব্রাউন ছাড়াও চকোলেট, মেরুন। যা সব বয়সের নারীদের দারুন মানিয়ে যাবে।

ফ্যাশন বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, গরমের সময় কিংবা শহর বা দেশের বাইরে যাত্রাপথে, কোথাও ঘুরতে গেলে, অথবা অফিস বা কলেজের কিশোরী ও তরুণীরা কুর্তিকেই বেশি পছন্দ করে। এটি সহজেই ক্যারি করা যায়। যা পরিস্কারেও খুব একটা ঝামেলা নেই।

রাজধানীর কিংবা এর বাইরে প্রায় অধিকাংশ শপিংমলেই নারীদের আরামদায়ক ও ফ্যাশনেবল  কুর্তির কালেকশন পাওয়া যায়। দেশিয় ব্র্যান্ডের দোকানগুলোতেও রয়েছে কুর্তি নানা ডিজাইন। যার দাম পড়বে ১ হাজার ৪০০ থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যেই। আবার অনলাইন থেকেও কেনা যাবে পছন্দের কুর্তি।

Link copied!