• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

গুলি ছুড়ে বিয়ে উদযাপন করে পলাতক কনে!


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১১, ২০২৩, ০২:০২ পিএম
গুলি ছুড়ে বিয়ে উদযাপন করে পলাতক কনে!

ভারতের উত্তর প্রদেশের হাটরাসে বিয়ের মঞ্চে কনে চার রাউন্ড গুলি ছুড়েছেন। পাঁচ সেকেন্ডে চার রাউন্ড গুলি ছোড়ার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে ওই কনে পলাতক রয়েছেন। পুলিশ তাকে ধরার চেষ্টা করছে।

গত শুক্রবার রাতে হাটরাস জংশন এলাকার সালেমপুর গ্রামে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়। পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য পুলিশ ভিডিওটি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ ও তদানুসারে তদন্ত করছে।

বিয়ের অনুষ্ঠানে মালাবদলের পরপরই গুলি ছোড়া হয়। মালাবদলের সময় বর-কনে আত্মীয়স্বজনদের কাছে আশীর্বাদ প্রার্থনা করেন ও পারিবারিক ছবি তোলেন। এরপরই কালো শার্ট পরা এক যুবক মঞ্চে উঠে কনের পাশে দাঁড়ান। কিছুক্ষণ দাঁড়ানোর পর তিনি কোমর থেকে পিস্তলটি বের করে কনের হাতে তুলে দেন। কনেও যেন পিস্তলটির জন্য অপেক্ষা করছিলেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, বিয়ের মঞ্চে পাশ থেকে এক যুবক কনের হাতে গুলিভর্তি পিস্তল তুলে দেন। এরপর কনে আকাশের দিকে তাকিয়ে পরপর চারটি গুলি ছোড়েন। এ সময় বর কনের পাশেই বসে ছিলেন। তাকে বেশ ক্লান্ত ও জড়সড় দেখাচ্ছিল। একই সময় পেছনে আরেকজনকে হাসতেও দেখা গেছে।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর নিখোঁজ নারীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে তারা।

উত্তর ভারতের কিছু রাজ্যে বিয়ের সময় বন্দুকের গুলি ছোড়ার রেওয়াজ রয়েছে। এসব ঘটনায় প্রায়ই আহত, এমনকি দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে।

ভারতীয় আইন অনুসারে, উদযাপনের সময় আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের ফলে অন্যরা বিপদে পড়লে ওই  ব্যক্তির জেল, জরিমানা বা উভয়ই হতে পারে। ২০১৬ সালে উত্তর প্রদেশের রাজধানী লখনউয়ের একটি আদালত নির্দেশ দিয়েছিল যে পুলিশ অভিযোগ দায়ের করুক বা না করুক, উদযাপনের সময় গুলি চালানোর প্রতিটি ঘটনা তদন্ত করা উচিত।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ওই বিয়ের ভিডিওটি কনের এক আত্মীয় রেকর্ড করেন।ওই আত্মীয় এটি সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন।

হাটারাসের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারিন্টেনডেন্ট (এসপি) অশোক কুমার সিং বলেছেন, “ওই ভিডিওর পরিপ্রেক্ষিতে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। কনের পরিবারকে শিগগিরই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। যেই যুবক কনের হাতে পিস্তল তুলে দিয়েছিলেন আমরা তাকেও শনাক্তের চেষ্টা করছি।”

গত সপ্তাহে পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্রের একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গেছে, নবদম্পতি খেলনার বন্দুক হাতে ছবি তোলার জন্য পোজ দিচ্ছেন।

Link copied!