• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

জার্মানিতে তীব্র গরমে বছরে ২০ হাজার মৃত্যু


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২৩, ০৫:০২ পিএম
জার্মানিতে তীব্র গরমে বছরে ২০ হাজার মৃত্যু

তীব্র গরমে নানান অসুখে ভুগে জার্মানিতে প্রতিবছর পাঁচ থেকে ২০ হাজার মানুষের মৃত্যু হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী কার্ল লাউটারবাখ। মঙ্গলবার এমন মৃত্যু ঠেকাতে শিগগিরই একটি ‘হিট প্রোটেকশন প্ল্যান’ তৈরির পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার (১৪ জুন) জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে। এতে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ভবিষ্যতে জার্মানিতে গরম আরও বাড়বে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী লাউটারবাখ। তিনি বলেন, “আমরা যদি কিছু না করি তাহলে প্রতিবছর কয়েক হাজার প্রাণ হারাবে।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “আমাদের বুঝতে হবে যে গরম সংক্রান্ত মৃত্যু প্রতিরোধে জার্মানি ভালো অবস্থানে নেই।”

জার্মানির আবহাওয়া অফিস ডিডাব্লিউডি জানিয়েছে, তথ্য সংগ্রহ শুরু হওয়ার পর জার্মানি ও ইউরোপে ২০২২ সালটি উষ্ণতম বছরগুলোর একটি ছিল।

ফ্রান্সকে অনুসরণ করে একটি হিট প্রোটেকশন প্ল্যান করার পরিকল্পনা করছেন জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী লাউটারবাখ৷ ২০০৩ সালে প্রচণ্ড গরমে কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যুর পর ফ্রান্স এ ধরনের একটি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিল। এর আওতায় জনসচেতনতা কর্মসূচি বাস্তবায়ন, বাড়িতে গিয়ে পরামর্শ দেওয়া, বিভিন্ন জায়গায় শীতলীকরণ ব্যবস্থা গড়ে তোলা, তথ্য পর্যবেক্ষণ করা ইত্যাদি করা হয়ে থাকে।

জার্মানির হিট প্রোটেশন প্ল্যানে তাপপ্রবাহের মাত্রা অনুযায়ী কয়েকটি স্তর ঠিক করা হবে। প্রতিটি স্তরের জন্য করণীয় কিছু কাজ নির্দিষ্ট করা থাকবে। যেমন সময় হলে হিটস্ট্রোকের লক্ষণ ও করণীয় সম্পর্কে অসুস্থ ও বয়স্ক মানুষদের বার্তা পাঠানো, জনসমাগম বেশি হয় এমন জায়গায় শীতলীকরণ ব্যবস্থা গড়ে তোলা, বিনামূল্যে খাবার পানির ব্যবস্থা করা ইত্যাদি কাজ করা হতে পারে।

হিট প্রোটেকশন প্ল্যান চূড়ান্ত করতে নার্স, চিকিৎসক, স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় কর্মকর্তা, ক্লিনিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে শিগগিরই আলোচনায় বসবেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এ বছরই এই প্ল্যান বাস্তবায়নের পরিকল্পনা করছেন তিনি।

Link copied!